আশে পাশে । হিয়া চৌধুরী । পর্ব-১৫ এবং শেষ

অতঃপর সবাই লাঞ্চ শেষ করে যে যার রুমে চলে যায়। সন্ধ্যায় রোদ বাসায় এসে ফ্রেশ হয়ে নেয়। জুহি হাতে গরম গরম দুই কাপ কফি নিয়ে রুমে আসে। রুমের কোথাও রোদ কে দেখতে না পেয়ে বেলকনিতে যায়। জুহি দেখে রোদ বেলকনিতে মন খারাপ করে বসে আছে। জুহির ও মন টা খারাপ Continue Reading →

আশে পাশে । পর্ব -১৪

মুখ টা ভালোভাবে দেখা যাচ্ছে না। তাই উঠে দাঁড়ায় জুহি। এখন ভালোভাবে দেখতে পাবে সে। তারপর জুহি লোকটিকে দেখে নিজের চোখ কেই বিশ্বাস করতে পারছে না। জুহি ভাবছে এটা কি করে সম্ভব! যে মানুষটা রোদের এতো আপন জন এতো ভালো বন্ধু। আপন ভাইয়ের মতো। সে কিভাবে পারলো রোদ কে এভাবে Continue Reading →

আশে পাশে । পর্ব -১৩

সকাল টা শুভ্র কে দিয়েই হাসি তামাশায় শুরু করা হয়। কাব্য আর রিমি শুভ্র রোদের কথার সাথে তাল মিলিয়ে শুভ্র কে আরো উষ্কে দিচ্ছে। সবাই হাসতে হাসতে শেষ। সকাল ১১ টার দিকে রোদের ফ্রেন্ডরা আসে। সবাই মিলে আড্ডায় মেতে উঠেছে। কলেজ লাইফের ফ্রেন্ড ওরা। সবার সাথে আড্ডা দিতে দিতে পুরো Continue Reading →

আশে পাশে । পর্ব -১২

কিছুটা খুশি হয় রোদ।মুখে হাসি নিয়ে দরজা খুলতেই‌ চোখ ছানাবড়া হয়ে যাওয়ার মতো অবস্থা রোদের। -আব্বু তোমরা! -তুই কেমন ছেলে রে হ্যাঁ! বড় করলাম আমরা আর বিয়েই আমাদের ছাড়া করে নিবি! -রোদ ভাইয়া দেখো তুমি শুভ্র ভাইয়া কে বলেছিলে কাজি সাহেব কে নিয়ে আসতে আর শুভ্র ভাইয়া গুষ্টি শুদ্ধ নিয়ে Continue Reading →

আশে পাশে । পর্ব – ১০ ও ১১

খুব আকর্ষণ করছে রোদ কে। রোদ জেনো কোনো এক ঘোরের মধ্যে চলে গেছে। জুহি চোখ খিচে বন্ধ করে রেখেছে। যা রোদ কে আরো পাগল করে দিচ্ছে। রোদ আর নিজেকে কন্ট্রোল করতে না পেরে জুহির ঠোঁট জোড়া নিজের করে নেয়। জুহি রোদকে হালকা একটা ধাক্কা দেয়। যার ফলে রোদ জুহির থেকে Continue Reading →

আশে পাশে । পর্ব -০৯

কিন্তুু এবার ঠিক তার উল্টো। জুহির মাথাটা কেমন ঝিম ধরে এসেছে। হঠাৎ মাথা ঘুরে পড়ে যেতে নেয় জুহি কিন্তুু তার সামনে থাকা লোকটি তাকে ধরে নেয়। এরপর আর কিছু মনে নেই জুহির। কারণ সে সেন্সলেচ হয়ে যায়। অন্যদিকে রোদ অফিসে চলে তো যায় ঠিক কিন্তুু নিজেকে কিছুতেই সামলাতে পারছে না। Continue Reading →

আশে পাশে । পর্ব ০৮

রোদ আস্তে আস্তে জুহির পাশে গিয়ে বসে। কেমন জেনো ঘোর লেগে গেছে তার। ইচ্ছে করছে জুহির কপালে তার ঠোঁট ছুঁয়ে দিতে। যেই ভাবা সেই রোদ আস্তে করে জুহির কপালে নিজের ঠোঁট ছুঁয়ে দেয়। কিছু টা কেঁপে উঠলো জুহি। হঠাৎ করে জুহির ঘুম ভেঙ্গে যায়। আর দেখতে পায় রোদ তার খুব Continue Reading →

আশে পাশে । পর্ব ০৬

রোদ কোনো ভাবে খেয়ে উঠে। কাউকে কিছু না বলে সোজা নিজের রুমে চলে যায়।চোখ মুখ লাল হয়ে গেছে রোদের। ভীষণ রকমের রাগ উঠে গেছে। টেবিলের উপরে থাকা কাঁচের ফুলদানি টা সজোরে ফ্লোরে ছুঁড়ে মারে রোদ। আর সাথে ফুলদানি টা ভেঙ্গে টুকরো টুকরো হয়ে যায়। -ওর আমার হাতে খেতে সমস্যা..! শুভ্রর Continue Reading →

আশে পাশে । পর্ব -০৭

রোদ জুহির কথায় নিশ্চুপ হয়ে যায়।জুহি রোদের থেকে নিজের হাত ছাড়িয়ে নিয়ে কাঁদতে কাঁদতে নিচে চলে যায়। শুভ্র ছাঁদে আসে….. -কিরে রোদ জুহির কি হয়েছে? কান্না করছে কেন? -কিছু না। রোদ কিছু না বলে ছাঁদ থেকে নেমে যায়। রোদের প্রচন্ড অনুতপ্ত বোধ হয়। জুহির সাথে এমন ব্যবহার করা তার সত্যি Continue Reading →

সে আমার । হিয়া চৌধুরী

হাতের খামচি দেওয়া জায়গা গুলো থেকে রক্ত পড়ছে অনুর। নিজের সব রাগ নিজের উপর প্রয়োগ করার ফলে এমন হয়েছে। চুল গুলো প্রচন্ড অগোছালো হয়ে আছে। বন্ধ একটা রুমে পাগলের মতো কান্না করছে সে। তার চিৎকার আর আর্তনাদ তনু শুনছে। কিন্তু করার মতো কোনো কিছুই তার নেই। বোন টাকে এভাবে কাঁদতে Continue Reading →

তুমিময় নেশা | হিয়া চৌধুরী

আমি নাতাশা কে বিয়ে করবো না!” আচমকা সালিফের এই কথা টা শুনে উপস্থিত সবাই হতবাক শুধু নাতাশা ছাড়া। কারণ সে জানতো শেষ মুহূর্তে সালিফ এটাই বলবে! বসা থেকে উঠে তালি বাজিয়ে নাতাশা বললো, —“বাহ সালিফ বাহ… আমি আগেই আন্দাজ করেছিলাম ঠিকই তুমি আমাকে বিয়া করবে না! আর দেখো সেটাই হলো!” Continue Reading →

তুমিময় নেশা | পর্ব -০২

মিহি গালে হাত দিয়ে নির্বাক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে। নাতাশা চেঁচিয়ে বললো, —“তোর জন্য হ্যাঁ শুধু তোর জন্য সালিফ গতকাল engagement এর আংটি খুলে ফেলে দিয়েছে। তুই আমার সালিফ কে আমার থেকে কেড়ে নিয়েছিস।” —“এসব কি বলছেন আপনি? আমি কেন উনাকে আপনার থেকে কেড়ে নিতে যাবো?” —“ও এখন না জানার ভান Continue Reading →

তুমিময় নেশা | পর্ব -০৩

সালিফ নাতাশা কে কল দিয়েছে দেখে খুব অবাক নাতাশা। দেরি না করে চট জলদি ফোন টা রিসিভ করে। নাতাশা কে কিছু বলতে না দিতে সালিফ বলে উঠলো, “কোথায় তুমি জলদি পার্কের সামনে আসো!” “হঠাৎ এতো জরুরি তলব?” “কথা আছে তোমার সাথে!” সালিফের শান্ত কন্ঠস্বর শুনে নাতাশা কিছুই বুঝতে পারলো না। Continue Reading →

ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের সকল শাখার নাম, ঠিকানা ও ফোন নাম্বার

Branches by Districts Branch Name District Address Bagerhat Bagerhat Kazi Badruddin Plaza, 37 Khan Azhar Ali Road, Bagerhat Barisal Barisal 109 Sadar Road, Barisal Bhola Bhola Jahanara Arcade, Holding No. 434, Sadar Road, Bhola Bogra Bogra Modhu Metro Tower, Sathmata, Bogra Ashuganj Brahmanbaria Noor Plaza, 117 Station Road Char, Char Continue Reading →

তুমিময় নেশা । পর্ব – ৪ এবং ৫

সালিফ মিহির কে বললো, “গাড়িতে উঠো!” “মানে?” “কানের ডাক্তার দেখাতে নিয়ে যাবো চলো।” মিহি দাঁড়িয়ে আছে। মুখে কোনো কথা নেই। “কি হলো নিজে উঠবে নাকি আমি কোলে করে উঠিয়ে দিতে হবে?” “না… আমাকে কোথায় নিয়ে যাবেন?” “বাসায়!” “কার?” “তোমার হবু জামাইয়ের!” “কিহ!” “একদম চুপ। উঠতে বলছি উঠো কোনো কথা নয়!” Continue Reading →

তুমিময় নেশা । পর্ব-০৬

রাইসার বাসায় ঢুকতেই সামনে পড়ে রাইসার আম্মু। মিহি সালাম দেয় তিনি সালাম এর জবাব দিয়ে মিষ্টি করে হেসে বললেন, “তাহলে তুমি ই সেই মিহি! বাহ ভারী মিষ্টি চেহারা তো!” মিহি কপট লজ্জা পায়।‌ রাইসা বলে উঠল, “লজ্জায় লাল টমেটো হয়ে যাচ্ছে দেখি!” “থাক রাইসা তুই ওকে তোর ঘরে নিয়ে যা Continue Reading →

তুমিময় শহর। পর্ব -০৭

সিমি আবারো বললো, —নাহ আমি ই নাতাশা। সালিফ তোমাদের মিথ্যা বলছে! মিনহাজ তাদের কে একটু অপেক্ষা করতে বলে গিয়ে উপরে চলে যায়। মিনিট কয়েকের মাথায় ফিরে আসে। হাতে কারো ছবি! সালিফ কে দেখিয়ে বললো, —এসব কি বলছো তুমি সালিফ? এটাই আমার মেয়ে নাতাশা। ও যখন কানাডায় ছিলো তখন ওর ফুপি Continue Reading →

তুমিময় নেশা । ৮ এবং শেষ পর্ব

মিহির মুখে কোনো কথা নেই। সালিফ মিহির সামনে এসে দাঁড়ালো। মিহি ভেবেছিলো সে সালিফের কথা ভেবেছে তাই মনে ভুল কিন্তু এখন দেখে না সত্যিই সালিফ তার সামনে দাঁড়ানো। হকচকিয়ে উঠে সে। —আপনি এখানে এতো রাতে কিভাবে? সালিফ ভুপ করে আছে, —কি হলো কথা বলছেন না কেন? —তোমাকে একটা কথা বলার Continue Reading →

মিঃ ডেভিল লাভার | হিয়া চৌধুরী । পর্ব -০১ এবং ০২

চেঞ্জিং রুমের ভেতর হুট করে একটা ছেলের আগমনে নীলিমা থ হয়ে যায়। রেগে যায় ছেলেটির চাহনি দেখে। হা করে তাকিয়ে আছে, কি অসভ্য রে বাবা। দাঁতে দাঁত চেপে নীলিমা ছেলেটির কলার ধরে বাহিরে আসে। ভাগ্যিস সে ভালো পজিশনে ছিলো নাহলে কি হতো বুঝতে তার আর বাকি নেই। সাফওয়ান কিছুই বলছে Continue Reading →