ভালোবাসার রংধনু | লেখক:আকাশ আহম্মেদ | প্রথম পর্ব

টুং টুং টুং….ফোনটা বাজতেছে স্কিনে তাকিয়ে দেখি নিলয় কল দিয়েছি…..
আমি:কি রে হারামি এতো সাজ সকালে কল দিসস কেনো একটু শান্তিতে ঘুমাতে ও দিবি
না ……নিলয়:দুর শালা রাখ তোর ঘুম এদিকে নীলা তো চলে যাচ্ছে….. আমি:হায়
হায় কস কি মামা কই তুই …..নিলয়:এই তো টং দোকানটার সামনে দাড়িয়ে
আছি…….. আমি:ওকে দারা আমি এক্ষুনি আইতাছি…… তারাতারি ঘুম থেকে উঠে
দৌড় লাগলাম বন্ধু নিলয়ের নিকট…….ও হ্যাঁ এবার পরিচয়টা দিই …… আমি
আকাশ আহম্মেদ…এবার অনার্স দ্বিতীয় বর্ষে পড়ি…….মধ্যবিও পরিবার বাবা
মায়ের একমাএ অবাধ্য সন্তান আর একটু আগে যে কল দিয়ে ছিলো সে আমার বেস্ট
হারামি বন্ধু নিলয় ……আমার সম্পর্কে আরো জানতে পারবেন একটু ওয়েট করেন
….দৌড়ে পৌছালাম নিলয়ের কাছে ….ঐ নীলা কই …নিলয়:হি হি হি হি ও তো এখনো
আসে নি তবে এক্ষুনি আসবে একটু দারা ……. আমি:শালা সাজ সকালে আমাকে ঘুম
থেকে এভাবে ডেকে আনলি ‌…..নিলয় :আরে দারা ভাই ও এক্ষুনি আসবে ..

www.jobcareer24.com
আমি:আচ্ছা চল একটু বসি…..আর হুম একটা কথা তো বলাই হয়নি যার জন্য দুই
বন্ধুর অপেক্ষা সে হলো নিল পরী……‌মানে নিলান্জনা ভালোবেসে নীলা ডাকি
‌‌……6 মাস ধরে পিছে পিছে ঘুরতাছি কিন্তু মাইয়ার কোন পাওাই পাই না
…….নিলয়:এ মাম্মা উঠ উঠ আইতাছে😜😜….
আমি:আরে ভাই আজতো নীলা কে সেই লাগতেছে……কিন্তু ইউনিফর্ম ছাড়া কই
যাইতাছে……এই রে কারো প্রেমে টেমে পড়ে নি তো ……… নিলয়:আরে মামা
তুই ও না একটা গাধা আজকে কলেজ বন্ধ তাই….. আমি:ইসসস নীলাকে তো নিল পরী
লাগতেছে রে মামা …….নিল নিল নীলান্জনা চোখ দুটো টানা
টানা…….নিলয়:হয়েছে এবার থামুন মামা চল আজকে সরাসরি ভাবি কে বলে দে তুই
তাকে ভালোবাসিস …… আমি:না রে ভাই আমারে দিয়া কিচ্ছু হইবো না …….
আমি আর নিলয় নীলার পিছে পিছে যাচ্ছি আর ফিস ফিস করে কথা
বলতেছি………নিলয়:শুন বুঝবি শালা যেদিন অন্যকেউ নিয়ে যাবে সেদিন তাই বলি
ছিলাম অনেক দিন হয়েছে এবার নীলা কে তোর মনের কথাটা বলে দে……….
আমি:না মামা তুই বল আমি পারবো না আমার নীলাকে খুব ভয় করে……..নিলয়:দুর
শালা তোরে দিয়া কিচ্ছু হইবো না ……..সামনে লক্ষ্য করে দেখলাম নীলা পিছন
ঘুরে আমাদের সামনে আসতেছে …. আমি তো ভয়ে পিছন ফিরে গেলাম নিলয় আমাকে
টেনে ধরে রেখেছে না হলে অনেক আগেই হাওয়া হয়ে যেতাম………নীলা:আপনাদের
দুই বন্ধুর কি খেয়ে দেয়ে কোন কাজ নাই …..অনেক দিন যাবৎ আমার পিছু নিয়েছেন
…সমস্যা কি হুম…….
weeklychakri.com

 

আমি:না ইয়ে মানে ‌‌‌‌‌‌‌‌……… নীলা :ঐ
মিষ্টার না ইয়ে মানে কি হুম……..নিলয়:না মানে আপু….আমার বন্ধু আকাশ
আপনা…… আমি:এইইইই চুপ আর কিছু বলার আগেই নিলয়ের মুখ চেপে
ধরলাম…..নীলা:এর পর আমার পিছে পিছে আসবেন না লোকে খারাপ ভাববে…….এই
কথা বলে নীলা চলে যাচ্ছি আমি তার চলে যাওয়ার দিকে তাকিয়ে আছি…….পিছন
থেকে নিলয় কিল ঘুসি শুরু করলো……….নিলয়: দিলি‌ তো শালা জল ঢেলে কি
সুন্দর ভাবে বলে দিতাম…….দেত তোর কপালে শালা প্রেম জুটবে না আমি যাচ্ছি
আর কখনো শালা তোরে Help করুম না ……. আমি:এই নিলয় নিলয় দারা না দোস্ত
যাইস না তোরে ছাড়া তো আমি কখনো প্রেম করতে পারবো না ………নিলয় ও চলে
গেলো যাক এবার বাসায় ফিরলাম বাসায় এসে শুয়ে আছি আর ভাবতেছি নীলা কে কত কম
সময়ে খুব ভালোবেসে পেলেছি‌…….কিন্তু বলার সাহস টা খুঁজে পাচ্ছি না
………কিভাবে বলবো নিলয় তো ঠিক ই বলসে যদি আমার আগে অনেকেউ বলে দেয়
‌…..না না এ হতে পারে না আমি নীলা কে খুব ভালোবাসি আর নীলাকে ছাড়া
একমূহুর্ত ও থাকতে পারবো না …….রাত টা কোন ভাবে কাটালাম আর সিদ্ধান্ত
নিলাম সকালেই নীলাকে সব বলে দেবো যা হবার হোক ……..পরদিন সকালে নীলার
অপেক্ষায় বসে আছি রাস্তার পাশে সেই টং দোকানে সকাল সাতটা ও প্রাইভেটের জন্য
আসবে এতো সকালে রাস্তায় খুব একটা মানুষ চোখে পড়ে না তাই নীলার সাথে আমার
কথা বলতে সুবিধাই হবে…….. একটু পর লক্ষ্য করলাম নীলা আসতেছে……
কিন্তু ও যতো আমার কাছে আসতেছে আমার শরীরটা তত শীতল হয়ে আসতেছে….ও যখন
একদম সামনে চলে এসেছে আমি ঠিক মতো দাড়াতে ও পারছি না কারন নীলাকে আমার খুব
ভয় করে আর ও যা রাগী মেয়ে আমার চোখের সামনে অনেক ছেলেকে কষিয়েছে …….
আমি:এই যে শুনুন……..নীলা: কিছু বলবেন …… আমি:না মানে ….. একটা
কথা বলার ছিলো….. নীলা : হুম বলুন….. আমি:বলছিলাম যে আ আ আ
……..নীলা:আপনি কি প্রাইমারীতে পড়েন নাকি দেখে তো মনে হয় না …এই বলে
একটা মুচকি হাসি দিলো ওয়াও কি সুন্দর হাসি এই প্রথম নীলার হাসি দেখলাম সাথে
সাথে ক্রাস খাইলাম …… আমি:না মানে তা না ….. আমিইইইই……নীলা :যদি
কিছু বলার থাকে তারাতারি বলুন আমার প্রাইভেটের দেরী হয়ে যাচ্ছে….
আমি:আপনাকে খুব সুন্দর লাগতেছে……..নীলা:এই কথা বলতে এতক্ষন লাগলো পাগল
আপনি….ধন্যবাদ আচ্ছা আমি এখন আসি প্রাইভেটের দেরী হয়ে যাচ্ছে এই বলে একটা
মুচকি হাসি দিয়ে চলে গেলো…
www.jobcareer24.com…. আমি তাকিয়ে আছি নীলার দিকে হঠাৎ মনে পড়লো
এই রে আসল কথাটাই তো বলা হলো না …….বাসায় যাবো তখনই নিলয়ের সাথে দেখা
‌…… নিলয়:কি মামা কিছু কইছো ….. আমি:হ মামা আজকে নীলার সাথে কথা
হইছে…….নিলয় :তো কি বললা মামা ….. আমি: …######……নিলয়:ও ভালোই
সাহস করে বলে দে আর সমস্যা নাই হয়ে যাবে টেনসেন না হয়ে যাবে
……….নিলয়ের সাথে আড্ডা শেষ করে বাসায় আসলাম …….খেয়ে দেয়ে ঘুমালাম
……..বিকালে ঘুম ভাংলো মায়ের ডাকে …….এই আকাশ উঠ তো…আমাদের উপর
তলার বাসাটা ভাড়া দিয়েছি আর যারা নিয়েছেন তাদেরকে বাসায় মালপএ তুলতে একটু
হেল্প করনা বাবা ….. আমি:আহ দিলা তো আমারের ঘুমটার বারোটা বাজিয়ে অনিচ্ছা
স্বত্বে ও প্রতিবেশি কে Help করলাম ……সকালে ঘুম থেকে উঠে আবার অপেক্ষা
নীলার জন্য কিন্তু আজকে নীলা আসতেছে না তিন ঘন্টা ধরে অপেক্ষা করার পর ও
না আসায় মন খারাপ করে বাসায় ফিরলাম এদিকে খুব টেনসেন হচ্ছে নীলার কিছু হলো
না তো এসব ভাবতে ভাবতে বাসায় আসলাম ‌……বাসায় এসে বসলাম একটু
পরে……….
.
.
.
.
চলবে……….