গল্পঃ ব্রেকআপ | লেখক: সিয়াম আহমেদ

ফকিন্নিটার সাথে প্রায় প্রতিদিনই দেখা হয়..
কি অসহ্য যন্ত্রণা..
ব্রেকআপ করেও শান্তি পেলাম না।
ব্রেকাপের পর একটা প্রেমও করতে পারছি না সব প্রেমে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে..
রাস্তাঘাটে যে দেখে সেই বলে..
-কিরে তোমাদের নাকি ব্রেকাপ হইছে..?
-হ্যা, তাতে তোমার কি..?
-না আমার কিছু না,তবে মিষ্টি খাওয়ালি না..
-খেয়ে দেয়ে কি কাজ নেই আমার তোমাকে মিষ্টি খাওয়াবো তাও ব্রেকাপের জন্য…!
-নাহ, নাই..
রিলেশন শুরু হওয়ার সময় তো বিরিয়ানি খাওয়াই ছিলা…
তো ব্রেকাপ হইছে মিষ্টি খাওয়াবি না কেন..?
-ধুর, যা তো..
ক্লাসের সময় গেলো আমার..
ক্লাসে গিয়ে বসতে না বসতেই ফকিন্নিটার মুখোমুখি দেখা..
সবাই জানে আমাদের ব্রেকাপ হয়েছে..
প্রেম করার চেষ্টায় আছি প্রতিদিন আরেকটার প্রেম করা যেন বাধ্যতামূলক..
করবোই বা না কেন..?
নীলাও তো করছে..
খালি ছেলেদের সাথে ক্লাসে বসে বসে ডেটিং মারা তাই না..?
দেখলে গা জ্বলে যায় ফকিন্নি একটা..
দাঁত কিড়মিড় করে যখন তাকালাম..
অমনি স্যার বলে উঠলো..
– কি সিয়াম তোমাদের নাকি ব্রেকাপ হইছে..?
-ইয়া মানে,স্যার আপনিও..?
-কি নীলা, তুমি ওইখানে বসেছো কেন..?
-স্যার, আমাদের ব্রেকাপ হয়েছে..
তাই একসাথে বসি না.. কথাও বলি না..
তবে দেখাদেখি করি আর কি..?
নীলার কথা শুনে সবাই হাসে উঠলো..
স্যারও মজা নিচ্ছে..
-বাহ, কি ব্রেকাপ রে ভাই..?
মনে হয় কারো বিয়ে হলেও এমন করে ঢোল বাজবে না..
(আমার দিকে তাঁকিয়ে কথাগুলো বললো স্যার)
ক্লাস শেষ করে মাঠে বসে আড্ডা দিচ্ছি…
নীলা একটু দূরে মাহমুদার সাথে বসে আছে অন্য মনষ্ক হয়ে গল্প করছে দুজনে…
ইতি এসে সামনে বসলো..
তড়িঘড়ি করে বলে উঠলাম..
-ইতি, আমি না তোমাকে লাভ করি..
– ওমা..
কি বলিস..?
তুই লাভ করিস তাও আমাকে..?
-হ্যা, তোকেই তো বলছি..?
-দেখ সিয়াম..
নীলা যদি জানতে পারে আমাকে এখানেই কবর দিবে..
সাথে মাথায় একটাও চুল থাকবে বলে মনে হয় না..
তোকে হয়ত কিছু বলবে না..
তার থেকে আমি বরং ভাগি এখান থেকে..
কথাটা বলতে দেড়ি ইতি দ্রৌড়াতে দেড়ি করলো না..
সালার এ তো দেখছি মহা ঝামেলা..
সালীটার জন্য কেউ প্রপোজ করবে দূরে থাক একসেপ্টপও করছে না..
এই পর্যন্ত কত জনকে প্রপোজ করলাম..
সবাই প্রপোজ শুনা মাত্র দৌড়ের উপর থাকে..
ফকিন্নিটাকে নিয়ে মহা বিপদে পড়লাম তো..
রাগ করে বাসায় ফিরছিলাম..
পিছনে ফিরে দেখি নীলা পিছু পিছু আসছে..
একটা বড়সড় ঝাড়ি দিয়ে বললাম..
-কি সমস্যাটা কি তোমার..?
পিছু পিছু আসছো কেন..?
মনে নেই যে ব্রেকাপ হইছে..?
যেতে পারো না তোমার সনু মনু কাছে..?
-হা হা হা..
যাবই তো সনু মনুর বাসা তো তোমার বাসার সামনে.. আজ কলেজে আসেনি..
তাই গিয়ে জানালা দিয়ে উকিঝুকি মেরে দেখে আসি..
-কিহ..?
যা এখান থেকে কুত্তী, ফাজিলনী, ফকিন্নি, এখন আর কোন গালি মনে পড়ছে না তবে পৃথিবীর সব তুই..
ছি ছি ছি, একটু লজ্জাও করে না তোমার..?
তুমি জানো তোমার জন্য কারো সাথে প্রেমও করতে পারছি না..?
-তোমাকে কেউ পছন্দ করলে তো প্রেম করবা..
-সাহস তো কম না তোমার..?
মনে নাই যে ব্রেকাপ হইলো..?
কথা বলা নিষেধ..?
-কত দিনের জন্য শুনি..?
-যাবা তুমি..?
-না যাবো না কি করবা..?
-তেলাপোকা আছে সাইড ব্যাগে দুইটা গায়ে বেধে দিবো..
-যাচ্ছি যাচ্ছি..
ওয়াক,থু..শেষমেষ তেলাপোকার ব্যবসা করো..
আর ওই যে সনু মনু কে দেখা যাচ্ছি..
তুমি তো আর ভালোবাসা দিবা না..
যাই ওদের সাথেই লাইন টাইন মারি গিয়ে..
মনে রাখিও আমাদের ব্রেক……. আপ হইছে..?
ব্রেকআপ কথা টা বলেই ফকিন্নিটা চলে গেলো..
বাসায় গিয়ে রাগে বসে বসে বক্সের ফুল ভলিউমে গান শুনছি..
প্রচন্ড রাগে কাঁপানি দিয়ে জিদ উঠছে..
একে তো ব্রেকাপ তার উপর আবার নীলা প্রেম করে..
তাও কি না সেই মনু ছনু এলাকার সব থেকে বাজে ছেলের সাথে..?
ধুর, সালীর চোখে কি আর কেউ পড়লো না..
ছেলেগুলোও বা কেমন..?
সবাই তে জানে নীলার সাথে আমার লাভ স্টোরি..
যাই হোক, ওর যা ইচ্ছে করুক আমার কি তাতে..?
একটু ফেবু তে লগ ইন করে দেখি কোন মেয়ে পটাতে পারি কি না..?
এগুলা কি দেখছি..?
ম্যাসেজের ভাড়ে কুজো হয়ে গেছে ম্যাসেন্জার এত ম্যাসেজ জীবনেও আসে নাই..
দেখি তো কি লেখেছে..
-ফাইজুন আপু ও ম্যাসেজ করছে ভাই তোর না কি ব্রেকাপ হইছে..?
কি ভাবে হলো,কেন হলো..?
-মামা নীলা মামির সাথে নাকি ব্রেকাপ হইছে..?
-ভাইয়া ব্রেকাপের মিষ্টি কই..?
ব্রেকাপের মিষ্টি তারাতারি খাওয়াবেন..
-রিফাত হারামীটাও ম্যাসেজ করছে..
কিরে তোদের নাকি ব্রেকাপ হইছে..?
পার্টি কবে দিবি..?
বড়সড় করে ট্রীট দিবি বুঝলি..?
মাথায় কিছুই ঢুকছে না কাহিনী টা কি..?
সবাই জানলো কি ভাবে আমাদের ব্রেকাপ হইছে..? আমাকে একাই কেন এই গুলো বলে..
আল্লাহ তুমি জমিন ফাটাও আমি নিচে নামে যাই..
মনে হচ্ছে ব্রেকাপ মানে ২য় বিয়ের মত খালি সবাই বলতে থাকে..
এই তোদের নাকি ব্রেকাপ হইছে..
বিয়ে হইলে বলতো..
এই তোর নাকি দুই বিয়ে হইছে..
বিকেলে বারান্দায় বসে ফেবু কে মেয়ে পটানোর পোষ্ট ভাবছিলাম..
তখনই বাবার ডাক..
-সিয়াম..এদিকে আয় তো..
(অনেক রাগি কন্ঠে)
ব্যাপার কি এত রাগি ভাবে কখনই আমাকে ডাকে না..
-কি বাবা বলো..
কিছু হইছে..?
-তোর সাথে নাকি কার ব্রেকাপ হইছে..?
কাহিনী কি, কি শুনছি এসব..?
-ইয়ে মানে…
তোমাকে কে বলল এসব..?
-বাসায় আসার সময় বাড়ির গেইটের সামনে দেখলাম, এক মেয়ে ফুলের তোড়া নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে..
জিজ্ঞেসা করলাম..
কা কে খুজো…?
-ইয়ে মানে আংকেল..
এই বাড়িতে কি সিয়াম নামের কেউ থাকে..?
-হ্যা থাকে, কেন..?
-না আসলে এই ফুলের তোড়া টা ওকে দিতাম..
-আমাকে দাও আমি দিয়ে দিবো..
-আমারই দিতে হবে..
শুধু বলেন কোন ফ্লোর এ থাকে..?
-কেন দিবা শুনি..?
-আপনি জানেন না..?
নীলা আর সিয়ামের ব্রেকাপ হইছে..
-কি বলো এই সব তুমি জানো আমি কে..?
– না তো আংকেল..
কে আপনি..?
-আমি সিয়ামের বাবা..
-না আংকেল কিছু হয় নাই..
আমি আজ আসি আংকেল..
আসসালামু আলাইকুম..
-আরে আরে, এই মেয়ে দাড়াও..
কি বলে গেলে তুমি..?
ব্রে….কা…প..!

____চলবে_____