বেঁচে থাকার দায়ে বেঁচে আছি

তোমাকে ছাড়া বাঁচবো না,
বহু বছর আগে খুব বড় মিথ্যা বলেছিলাম প্রিয়।
আমাকে ক্ষমা করে দিও।

এ শহরে রোজ রোজ বহু সম্পর্কের বিচ্ছেদ হয়
বহু স্বপ্নকে গলা টিপে হত্যা করা হয়,
বহু মন ভেঙে দেওয়া হয় কাঁচের ন্যায়।
তবু তারা বেঁচে থাকে-
অনুভূতি ছাড়া মন নিয়ে,
দীর্ঘশ্বাস ভরা বুক নিয়ে,
অভিশপ্ত এক জীবন নিয়ে
আমিও বেঁচে আছি তাদের ন্যায়।

আমি বেঁচে আছি, খুব স্বাভাবিক ভাবেই বেঁচে আছি
রোজ নিয়ম করে খাচ্ছি, ঘুমাচ্ছি,বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছি, আরো কত শত কাজ করছি।
তবু দিন শেষে যে এক চাপা দীর্ঘশ্বাস,
তা আমাকে বেঁচে থাকতে দিলেও,ভালো থাকতে দেয় না।

যেদিন তুমি আমার স্বপ্ন গুলোকে মাড়াই করে দিয়ে চলে গেলে,
বিশ্বাস করো ,আমি মরে যেতে চেয়েছিলাম ।
কিন্তুু আমি আমার বাবা-মায়ের মুখের পানে চেয়ে ব্যর্থ হয়েছি।

স্বপ্ন ভাঙার কষ্ট কতটা নির্মম তা তো আমি বুঝি
যেখানে তুমি আমার কয়েক বছরের স্বপ্ন ভেঙে দিয়েছো বলে আমি মরে যেতে চাই।
সেখানে আমার জন্মের পরে থেকে আমার বাবা-মা তিলে তিলে যে স্বপ্ন গড়েছে,
আমি মরে গিয়ে চোখের পলকে তাদের সে স্বপ্ন ভেঙে দিতে পারিনি।

যেখানে পৃথিবীর চাপা দীর্ঘশ্বাস এতটা ভারী,
সেখানে নিজ হাতে নিজেকে ধ্বংস করে
সৃষ্টিকর্তাকে নারাজ করে
চিরকালের জন্য নরকে পা রাখার সাহস আমি করতে পারি নি।

আমি বেঁচে আছি ঠিকই,তবে ভালো থাকতে পারিনি
তোমার স্মৃতি গুলো আমাকে ভালো থাকতে দেয় নি।
ভাঙা স্বপ্ন গুলো নিয়ে,বেঁচে থাকার দায়ে আজও আমি বেঁচে আছি ।
বহু বছর আগের মিথ্যা কথার জন্য আমাকে ক্ষমা করে দিও প্রিয়।