কবিতাঃআমার কি|মোঃশাহিন আলম শান্ত

নবাব সিরাজউদ্দৌলার মৃত্যু স্ব চক্ষুতে উপভোগ করেছিল শত শত মানুষ
ক্লাইভ বলেছিল সবাই হয়েছিল ওইদিন হাসির ফানুস!!
শত শত মানুষ নিতো হাতে সেদিন একটি করে ইট
ইট দিয়ে চালালে লড়াই, বিট্রিশরা ই হতো পতঙ্গ কীট!
বাঙালি জাতি সেদিন ই ছিলো কাপুরুষ
আজো হতে পারে নি ওরা বীরপুরুষ!!!
মীর জাফর,মীরান,মোহাম্মদ বেগ ক্ষমতার লোভে বাংলাকে করেছিলো খই
অশান্তি,ধ্বংসের জন্য এরা হয়েছিল বেঈমানের সই।
শত শত মানুষেরা দেখেছিল অত্যাচার
হাসি মুখে বরণ করে বাঙালি কষ্ট হার
তারপরেও প্রতিবাদে করে নি শত্রুদের ছারঘার!!!
দুর্বল খাচ্ছে মাইর হচ্ছে নির্যাতন
চেয়ে চেয়ে দেখে শত শত মানুষ,
সবাই বলে আমার কি?আমিতো ভালো আছি!!

এসেছে আবার ফিরে সেই যুগ
চারিদিকে কুকুরেরা মুকুর ছড়িয়ে করছে দেশ ভোগ।
কুকুর,বকরি,ভেড়া হয়েছে বাবু
হাতি,ঘোড়া,সিংহ হয়েছে সাবু
বাঘ জেগে রয়েছে একাই,করতে ওদের কাবু!!
থামাও কুকুরের আসন
না হয় আমরাও করবো শাসন।
১৮কোটি মানুষ জেগে উঠো

রুখতে হবে লাঠি বাহিনীর লাঠি
কতকাল রবে জানোয়ারের পায়ের চটি?
ছাত্র,জনতা,কৃষক সবাই মিলে
পাঠাবো ভগবানদের শূন্য নীলে।
আন্দোলন চলবে আন্দোলন
হে জাতি আর ঘরের কোনে না থাকি
দেশপ্রেমে জমিয়েছ অনেক বাকি।
এবার এসো সংগ্রামে বিজয়গাঁথার স্লোগানে
আমার কি আমার কি বলে পৌছেয়েছি আমরা মৃত্যুর গ্লানে!!

যদি জাগ্রত হতে না পারিস আজি
খাবি হায়নাদের বুটের চাপা
তখন হবি রোহিঙ্গার মতন ফাঁপা।
বাংলার মাটি করতে ই হবে এবার দুর্জয় ঘাটি
তাড়াতেই হবে সব কুলাঙ্গারের পাটি!!!
আমার কি আমার কি বলে থাকিস না আর চুপ
হাতে নে তুলে আবার বিজয় নিশান
ছল ছল কল কল করে বাজা বিষান।
আয় আয় দামালেরা করতে থাক সব অপকর্ম সামাল
নিরপেক্ষতায় থাকবে পাশে কামালের সেনারা আবার।