গল্পঃ পুরুষ

পুরুষ

পুরুষদের নাকি কষ্ট হয় না,
হওয়ার তো কথাও নয়,বাস্তবতায় তারা বাঁচতে জানে,কান্না লুকিয়ে পুরোদমে হাসতে জানে।

পুরুষদের আবার মন ভাঙ্গা কী,
পাজর ভাঙ্গার কষ্ট কেবল হাড় গুলোই জানে
চামড়ার বাহিরে আর ক্ষতর দরকার কী?

পুরুষদের তো মন নেই,
প্রেম নিয়ে খেলেই কেবল
অথচ দায়িত্বের বেড়াজাল ডিঙ্গিয়ে
হয়না পাওয়া ভালোবাসা যাযাবর।

পুরুষ মানেই তো প্লেবয়,
পুরোদমে ভালোবেসে অযুহাত দিয়ে ছেড়ে যায় কেবল,অথচ তাদের কষ্টটাও মেয়েদের মতই প্রখর।

পুরুষ মানেই শক্ত সার্মথ,
খুশিতে চকচক করা চোখ থাকলেও
কান্নায় জ্বল জ্বল করা চোখ থাকতে নেই
ও হ্যা পুরুষদের তো আবার কাঁদতেও নেই।

কেননা, পুরুষদের তো ইনকাম, দায়িত্ব আর নিজের ছোটবড় শখ চাওয়া পাওয়া ইচ্ছের বির্সজনেই বড় হতে হয়, তাদের আবার কান্না কী,তারা তো পাষাণ।

কেননা এই জগৎ এ বির্সজন মানেই নারী,
পুরুষের আর কি হলেই হলো
কোন এক সুন্দরী রমনী আর বিলাসিতায় মোড়ানো বিশাল একটা বাড়ী।

তবুও কখনো কখনো পুরুষেরাও অবহেলিত,প্রতারিত, এমনকি দিনশেষে তারাও বহন করে আকাশ সামান অসহায়ত্ব ।