নিঝুম দ্বীপ ভ্রমণ গাইড

নিঝুম দ্বীপ (চর ওসমান) বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে, নোয়াখালী জেলার দক্ষিণ অংশ বেয়ে বঙ্গোপসাগরের মোহনায় জেগে ওঠা দ্বীপের সমষ্ঠি। বল্লার চর, কমলার চর, চর ওসমান ও চর মুরি এই চারটি প্রধান দ্বীপ ও বেশ কয়েকটি ছোট চর সমন্বয়ে সর্বমোট প্রায় ১৪০৫০ একর এলাকা নিয়ে গঠিত এই দ্বীপাঞ্চলটি ১৯৫০ -এর গুরুর দিকে জেগে ওঠে।

প্রথমে স্থানীয় জেলেরা দ্বীপটি আবিষ্কার করে। তারা এর নাম দেয় বুলুয়ার চর, যা পরবর্তীতে বল্লার চর-এ রূপান্তরিত হয়। শীতকালে এখানে হাজার হাজার অতিথি পাখির সমাবেশ ঘটে। জেলেদের ধরা নানারকম মাছ শুকানোর জন্য এটি একটি আদর্শ স্থান হিসেবে ব্যবহৃত হতে থাকে। তাদের অনেকে এখানে অস্থায়ী খড়ের ঘরও নির্মান করে।

নিঝুম দ্বীপে যাতয়াত ব্যবস্থা

সাধারণত অকোটবর থেকে এপ্রিলের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত নিঝুম দ্বীপ ভ্রমণ করার উপযুক্ত সময়। এবছর অন্যান্য সময় শেঘনা নদী ও সাগর বেশ উত্তাল থাকে। তাই এই সময় নিঝুম দ্বীপ ভ্রমণে সতর্ক থাকা উচিত। ঢাকার সরদঘাট থেকে প্রতিদিন পানামা ও টিপু ৫ নামের লঞ্চ হাতিয়ার উদ্দেশ্য ছাড়ে। সন্ধা ৬টায় ভাড়া ডেকে ৩০০টাকা, সিঙ্গেল কেবিন ১০০০ টাকা , ডাবল কেবিন ১৫০০ টাকা এবং ভিআইপি কেবিন ২৫০০ টাকা। লঞ্চ ছাড়লে এবং আবহাওয়া ঠিক থাকলে ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া লঞ্চটি হাতিয়ার তমুদ্দী ঘাটে পৌছায় পরদিন সকাল ৮টা থেকে ৯টার মধ্যে।

পানামা লঞ্চের নাম্বার

মোবাইল নাম্বার = 01740-951720

এম.ভি. টিপু

ঢাকা-০১৭৭৭-৬৮১৬৫৫, ০২ ৯৩৩৭৩৩৫

এম.ভি তাসরিফ -১

রুটঃ ঢাকা-মনপুরা-হাতিয়া । ফোনঃ ০১৭৩০-৪৭৬৮২২

এম.ভি তাসরিফ-২

রুটঃ ঢাকা-মনপুরা-হাতিয়া। ফোনঃ ০১৭৩০-৪৭৬৮২৪

এম.ভি ফারহান-৩

রুটঃ ঢাকা – মনপুরা-হাতিয়া। ফোনঃ০১৭৮৫-৬৩০৩৬৫

এম.ভি ফারহান-৪

রুটঃ ঢাকা-মনপুরা-হাতিয়া । ফোনঃ ০১৭৮৫-৬৩০৩৭০

এ ছাড়া বন্দরনগরী চট্রগামের সদরঘাট থেকেও সপ্তাহের একটি নির্দিষ্ট দিনে চট্রগাম থেকে একটি জাহাজ হাতিয়ার উদেশে ছেড়ে যায়। মনে রাখবেন ফেরার সময় তমুদ্দী ঘাট থেকে ঢাকায় ফেরার লঞ্চ দুপুর ১২ টা ৩০ মিনিটে ছাড়ে।

হাতিয়ার তমুদ্দী ঘাটে নেমে মোটরসাইকেল যোগে মোক্তারি ঘাটে আসতে হবে। মোক্তারি ঘাটে আসতে দুেইজনের ভাড়া লাগবে ৪০০ থেকে ৫০০ টাক। মোক্তারি ঘাট থেকে নিঝুমদ্বীপের বন্দরটিলা ঘাটে যেতে ট্রলার ভাড়া লাগবে জনপ্রতি ৫০ টাক। আর বন্দরটিলা ঘাট থেকে মোটরসাইকেলে করে নিঝুম দ্বীপের নামার বাজার যেতে দুইজনকে ২০০ টাকা ঝরচ করতে হবে আপনাকে।

তমুদ্দী ঘাট থেকেও সরাসরি নিঝুম দ্বীপ নামার বাজার যেতে পারবেন । প্রতিদিন সকাল ১০ টার সময় তমুদ্দী ঘাটে থেকে কিছু ফিশিং ট্রলার সরাসরি নিঝুম দ্বীপের নামার জাবার যায়। এগুলিতে জনপ্রতি ভাড়া ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা ভাড়ায় যেতে পারবেন। এছাড়া ট্রলার বিজার্ভ করে নিয়ে নিঝুম দ্বীপের নামার বাজার যেতে ট্রলারের সাইজ অনুযায়ী ৩৫০০ থেকে ৫০০০ হাজার টাকা লাগতে পারে।

থাকার জায়গা

নিঝুম দ্বীপে থাকার জন্য নামার বাজার সী বীচের কাছে অবস্থিত অবকাশ পর্যটনের নিঝুম রিসোর্ট বেশ ভালো জায়গা। নিঝুম রিসোর্ট ১৫০০ থেকে ৩০০০ টাকায় বিভিন্ন ক্যাটাগরির রুম পাওয়া যায়। সাধারণত অফ সিজনে (এপ্রিলে ১৫ থেকে সেপ্টেম্বর ৩০ পর্যন্ত ) এখানে ৫০% সিকাউন্টে রুম পাওয়া যায়।

নিঝুম দ্বীপ অফিস

সবুজ ভাই -01724-145864, 01845-558899 , 01738-230655

ঢাকা অফিস

অবকাশ পর্যটন লিমিটেড, আলহাজ সামসুদ্দিন ম্যানেজার -নবম তলা, 17 নিউ স্কাটন রোড।

ফোন-9342351, 9359230, 8358485, 01552-372269

হোটেল শাাহিন

ফোন নাম্বার- 01863-150881

অল্পটাকায় সমজিদ বডিং

মোবাইল নাম্বার -01866-373937, 01727-958879

সৈয়দ চাচার থাকার ও খাবার হোটেল

মোবাইল নাম্বার-01847-123573

হোটেল শেরাটন

ফোন নাম্বার- 01847-123573 এবং 01847-123572

খাবার জায়গা

এই দ্বীপে খাবারের মান বেশ ভালো লাগবে আপনার কাছে। এখানে বেশিরভাগ প্রচলিত খারের মধ্যে সামুদ্রিক মাছ, মোটা চালের ভাত, মাংস, রুই ইত্যাদি উলেখযোগ্য। এখানে আশে পাশে কিছু ভালো মানের খাবর হেটেল আছে যা আপনা নজর কারবে তাবে খাবারের দাম একদম হাতের নাগালে। আর যদি সামুদ্রিক মাছ টাটকা ভাজি খেতে চান তবে আপনার সামনেই ভেজে দিবে এসব মাছ।