ভালোবাসার প্রতিদান । পর্ব-০৪

কিছুক্ষণ আগের স্বচ্ছ নীল আকাশটা এখন ঘন কালো মেঘে তে ভরপুর।বারবার বিজলি চমকে উঠছে।সবকিছু শুনশান আর নিরব।পরিস্থিতিই বলছে যেকোনো সময় বৃষ্টি নামতে পারে।আমি গ্লাসের মধ্য দিয়ে সেদিকে খানিক্ষন তাকিয়ে থেকে সামনে বসে থাকা আকাশ ভূঁইয়া অনিলের দিকে এবার তাকাই।সে এখন আমার সামনে বসে আছে।অবশ্যি গতকাল তার ফোন অন করার পর Continue Reading →

ভালোবাসার প্রতিদান । ০৩ এর পর- বোনাস পর্ব

তিথিকে কল করে ফটো পেয়ে যাবো ভেবে যে আশ্বস্ত হতে পেরেছি তা কিন্তু নয়!পরপর সাত ঘন্টা পার হলো। তিথি এখনো আমাকে কল করে কিছু জানাচ্ছে না ফটো কালেক্ট করতে পেরেছে কি পারে নি!আমি বার কয়েক ওর ফোনে ট্রাই করেছি ও কোনো রেসপন্স করেনি।খুবই চিন্তা হচ্ছে!ওর উপর আশা রাখাটা আসলেই কি Continue Reading →

ভালোবাসার প্রতিদান । পর্ব -০৩

আমি আর স্থবির থাকতে পারলাম না।রাগে-কষ্টে-ক্ষোভে নড়ে ওঠে আমার সর্বাঙ্গ!ফোনটা নিচে নামিয়ে দ্রুতপদে এগিয়ে যাই ছেলেটির দিকে!ছেলেটি মাথা নুইয়ে ঘড়িতে টাইম দেখতে ব্যস্ত ছিল তখন!আমি সেই ব্যস্ততাকে এক ছটাকে ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দিই। “আপনি ত সেই যে আমার বাঁজে ছবি বানিয়ে বিয়ে ভেঙ্গে দিয়েছিলেন!তাই না?” আকস্মিক আমার উঁচু গলার বাক্য ছেলেটির Continue Reading →

ভালোবাসার প্রতিদান । পর্ব -০২

চারদিক আঁধারে ভরপুর!পাঁচ মিনিট আগে দূরের একটা বাড়িতে পঞ্চাশ পাওয়ারের একটা বাতির আলো দেখা গিয়েছিল।তার খানিক পর সেই আলোটুকুও নিবে গেল।গৃহস্থ জানলা বন্ধ করে ঘুমিয়ে গিয়েছে হয়তো।এখন কাছে,দূরে সবখানেই নিস্তব্ধতা এবং অন্ধকারে ঢাকা।কেউই জেগে নেই।সবাই ঘুমন্তপুরীতে।শুধু আমিই একমাত্র ব্যক্তি যে এখনও ঘুমাই নি।ঘুমানোর বহুবিধ চেষ্টা করেছি।কিন্তু চোখে আর ঘুম ধরা Continue Reading →

ভালোবাসার প্রতিদান । পর্ব -০১

কবুল বলবো…..!ঠিক এমন সময় রিয়াশের বাবা,অর্থাৎ আমার হবু শ্বশুর এ রুমে এসে বলেন, “এই বিয়ে হবে না!কাজী সাহেব আপনি চলে যান!” উনার মুখে এ’কথা শুনে আমি চমকে উঠি।সাথে আমার মা,-বাবা,ভাই-ভাবী আত্মীয়-স্বজন এবং প্রতিবেশীরাও।বাবা বলেন, “এ আপনি কি বলতেছেন,বেয়াই সাহেব?বিয়ে হবে না মানে?!” “জ্বী,ঠিকই বলছি!আপনার ওমন চরিত্রহীনা একজন মেয়েকে আমি কখনোই Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -২০

অরনিঃ জি আসলে…… এক মিনিট আগে তোমার সাথে হিসাব করে নিই ( অর্ণবের দিকে তাকিয়ে) অর্ণবঃ (ভয়ে ভয়ে) আ…আমি আব….আবার ক..কি করলাম? অরনিঃ কি করলা মানে? তুমি আমাকে বলনি কেন আহান ভাইয়ার গফ আছে?? আহানঃ অর্ণবঃ কিহহহ‌!!! ( আহানের দিকে তাকিয়ে) আহান তোর গফ আছে??? আহানঃ মানে? কিসের গফ? কোথাকার Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -১৯

অরনিঃ আপু আর ইউ mad?? কি করেছিস তুই আর কেন করেছিস ? আরোহিঃ আমি এমন না করলে যে অনেক বড় ক্ষতি হয়ে যেত রে? অরনিঃ মানে? আরোহিঃ ঐ দিন কলেজে সায়র আমাকে ধরে নিয়ে গেছিলো। তখন ও আমার রেপ করতে চায় যেন আমি সায়রের হয়ে যাই কিন্তু একটা কল আসায় Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -১৮

তখনই আরোহি রুমে ঢুকে, অরনিঃ আপু এটা কে? এই ম্যাসেজের অর্থ কি? আরোহিঃ ( এখন কি বলি ) না…..ন..না ক…কই কিচ্ছু ন..না তো আর তু.তুই আমার ফোন ধরেছিস কেন? ( বলেই ওর হাত থেকে ফোনটা কেড়ে নিলাম) অরনিঃ ( দাল ম্যে কুছ কালা জারুর হ্যায় ) আমার বয়েই গেছে তোর Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -১৭

আহানঃ ( আমার হাতটা ছুটিয়ে নিলাম) আমি যেমন তোমার বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবো না আশা করি তুমিও আমার বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবে না আর আমি কি করবো না করবো তোমাকে না ভাবলেও চলবে [বলেই চলে আসলাম] আরোহিঃ আমি কলেজে আর এক মুহূর্ত না থেকে বাসায় চলে আসলাম. রুম লক করে কান্না করতে Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -১৬

আহান আরোহিকে গাড়িতে করে আরোহির বাসায় নিয়ে যাচ্ছে,,,, আরোহি খুব ভয় পেয়ে আছে, তাই এখনই কিছু জিজ্ঞেস করছে না। আরোহি মাথাটা সিটের সাথে লাগিয়ে বাহিরে তাকিয়ে আছে আর চোখ দিয়ে পানি পড়ছে। আহান আরোহির ডান হাতটা ধরলো। আরোহিও আহানের হাত ধরলো। হুট করে আহানের কাধে মাথা রেখে কান্না করতে শুরু Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -১৫

সবাই আরোহিকে খুজতে ব্যাস্ত হয়ে গেলো,, সামনে অর্ণবকে দেখে, আহানঃ অর্ণব, আরোহিকে দেখেছিস? অর্ণবঃ না, কেন? আহানঃ ওকে খুজে পাচ্ছি না অর্ণবঃ হোয়াট! অনুষ্ঠান ছেড়ে কোথায় যাবে? সায়র কোথায় দেখ আহানঃ সায়র এখানেই আছে। আরোহিকে খোজ অর্ণবঃ হুম তুই চিন্তা করিস না। আমি ওদিকে দেখছি প্রায় ৩০ মিনিট খোজার পরও Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -১৪

আহান আরোহির হাত ধরে স্টেজে নিয়ে গেলো। এবার ওদের ড্যান্স শুরু হবে, আহান আরোহির বাংলা গানে ড্যান্স করার কথা কিন্তু হঠাৎ করে হিন্দি গান শুরু হয়ে গেলো। আরোহি এমনিতেই ভয় পাচ্ছিলো, আবার এখন গান পরিবর্তন হওয়াতে অবাক। কিন্তু আহানের কোনো মাঘা ব্যাথাই নেই। বরং আরোহিকে নিজের দিকে টান দিয়ে নাচতে Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -১৩

অরনিঃ আমি নিজে না পাই কিন্তু ওকে ওর ভালোবাসার মানুষকে পাইয়ে দিতে চাই। আম সরি অর্ণব কিন্তু আমি আগে যা বলেছি এবং এখন যা বলছি সবটা সত্যি অরনি মুখটা নিচু করে রেখেছে। ওর মুখ দেখেই বোঝা যাচ্ছে ও অনেক অপরাধ বোধ করছে, অপরাধ বোধে মুখ তুলে তাকাচ্ছে না তখনই অর্ণব Continue Reading →

স্বপ্নের ক্রাশ । সত্য ঘটনা অবলম্বনে । পর্ব -১১

আহানঃ তার মানে তুমি এই অহি কে ভালোবেসে ফেলেছো আর বেশি দেরি করবো না। তুমি জলদি তোমার আহানকে পেয়ে যাবে… কলেজ শেষে অর্ণব গাড়ি নিয়ে অরনির কোচিং এর সামনে অপেক্ষা করতে থাকে,,,,, অবশেষে অরনি বের হলো। অর্ণবকে দেখে ওর দিকে এগিয়ে এলো,, অরনিঃ কি ব্যাপার,, আপনি এখানে? অর্ণবঃ কেন? আসতে Continue Reading →

আমি যারে চেয়েছিলাম । পর্ব -০৬ এবং শেষ

সেহরীশ কিছু বলতেও পারছে না সইতেও পারছে না।ওই কথাগুলো বলে একবারে বিপাকেই পড়ে গেলো সে।এখন ওদের বুঝাবে কি করে সেটা নিয়েই সেহরীশ টেনশনে আছে। কিন্তু তার আগে ব্যাপারটা এখনই রুদ্ধকে জানাতে হবে।তাই সেহরীশ তৎক্ষনাৎ রুদ্ধকে ফোন দিলো।রুদ্ধ রিসিভ করতেই আতংকিত কন্ঠে বলল,’জানো কি হয়েছে?’ ‘কি হয়েছে?’রুদ্ধ কৌতুহলী হয়ে জিগ্যেস করলো। Continue Reading →

আমি যারে চেয়েছিলাম । পর্ব -০৫

সেহরীশ ঘাবড়ে গেলো রুদ্ধের কথা শুনে।ঢোক গিলে বলল,’ক.. কি ক.. করবেন আপনি?’ রুদ্ধ হাসলো।বলল,’ভয় পেয়ো না।কিছুই করবা না আমি।অতোটাও খারাপ না যতোটা ভাবো।তবে আমি তোমার গায়ে হাত দিয়েছি বা অসভ্যতা করেছি এগুলো প্রিন্সিপালকে না বললেও পারতে।মিথ্যে কথাগুলো বানিয়ে বলার কি প্রয়োজন ছিলো। . রুদ্ধ’র কথাগুলো শুনে সেহরীশ আকাশ থেকে পড়লো।এমন Continue Reading →

আমি যারে চেয়েছিলাম । পর্ব -০৪

রুদ্ধকে বাড়ির সামনে দেখে সেহরীশ এগিয়ে এলো।বলল,’আপনার জন্য আজকে মানুষের কাছে অপদস্ত হতে হচ্ছে আমার।পুরো ভার্সিটিতে রটে গেছে আমি আপনার প্রেমিকা।শুধু প্রেমিকা না কতো নাম্বার প্রেমিকা এটা জিগ্যেস করছে সবাই।’ রুদ্ধ স্বাভাবিক ভাবেই বলল,’তো?তাতে কি হয়েছে?তোমার গায়ে ফোস্কা পড়েছে?মানুষের কথা এতো গায়ে লাগলে তো টিকতে পারবে না এই দুনিয়ায়!কয়েকদিন বলবেই Continue Reading →

আমি যারে চেয়েছিলাম । পর্ব -০৩

সেহরীশ এবার না পেরে বলল,’আপনি আমার পিছনে হাটছেন কেনো?পাশাপাশি হাটুন।’ রুদ্ধ এক ভ্রু কুঁচকে বলল,’কেনো? ‘মনে হচ্ছে আপনি আমাকে পাহারা দিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।’ ‘আচ্ছা তাহলে আমি সামনে হাটি তুমি পিছনে হাটো কিন্তু পাশাপাশি হাটা যাবে না।তোমার বাড়ির সামনে আসলে ডাক দিও।’ ‘আচ্ছা।’ এরপর দুজনের অবস্থান পরিবর্তন হলো।রুদ্ধ সামনে গেলো আর Continue Reading →

আমি যারে চেয়েছিলাম । পর্ব -০২

সেহরীশ একটু চুপ করে থেকে আবার বলল,’ভাইয়া আপনি কোন ইয়ারের?’ রুদ্ধ চোয়াল শক্ত করে বলল,’এই মেয়ে তুমি কি ভাইয়া বলা ছাড়া কথা বলতে পারো না?’ সেহরীশ ভীরু কন্ঠে বলল,’আপনি তো সিনিয়র।তাই ভাইয়া’ই তো বলবো।’ রুদ্ধ চিবিয়ে চিবিয়ে বলল,’না খুকুমণি আমাকে ভাইয়া বলবে না।তুমি আমার নাম ধরে ডাকবে।’ ‘কিন্তু….’ ‘কোনো কিন্তু Continue Reading →

আমি যারে চেয়েছিলাম । পর্ব -০১

রুদ্ধ শক্ত করে মিথির পা চেপে ধরে রেখেছে।আর কাঁদছে।এদিকে মিথি চলে যাওয়ার জন্য পা ছাড়াতে চাচ্ছে কিন্তু পারছে না।মিথি কন্ঠে বিরক্তি নিয়ে বলল,’এইজন্যই আমি আসতে চাই নি।ছাড়ো রুদ্ধ।একটু পর আমার বিয়ে।তোমার কথায় আমি তোমার সাথে দেখা করতে এসেছি।এমন ভাবে কান্নাকাটি করছিলে যেনো আমি মরে যাচ্ছি।আরে বাবা,কে না নিজের সুখ চায়।আমি Continue Reading →