পলাশের শশুর বাড়ী

আজ পলাশ শশুড় বাড়ি যাচ্ছে। তাকে বিদায় দিতে সবাই এসেছে। মা চাপা স্বরে কান্না করছে ছেলেকে শশুড় বাড়ি পাঠাচ্ছে এই রাগে। কি ভাবছেন ছেলে শশুড় বাড়ি বেড়াতে গেলে এমন কিহলো? না। পলাশ শশুড় বাড়ি বেড়াতে যাচ্ছে না। মেয়েরা যেভাবে শশুড় বাড়ি যায় ঠিক তেমন। না, ঘর জামাইও না৷ আমি নীলা। Continue Reading →

গোপাল ভাড়

গল্প-০১ গোপালের স্ত্রী নিজেই দেখাশোনা করে বড় মেয়েকে এক বামুনের বাড়িতে বিয়ে দিয়েছিল। সেই মেয়ের মেয়ে বড় হোল একদিন। তারই বিয়ের নিমন্তন্নে গোপালেরা উপস্থিত। স্ত্রী একান্তে ডেকে বললে, হ্যাঁ গা, আমাদের বড় মেয়ের জামাই নাকি জাতে নাপিত বামুন নয়। কিন্তু সে সম্বন্ধ তুমি কিছু জান কি? স্ত্রীর কথা শুনে গোপাল Continue Reading →

গোপাল ছেলেদের কথায় না হেসে পারল না

গোপাল একবার নদীর ঘাটে ঘাটের ইজারা নিয়েছিল। নদীর ফেরী ঘাটের ইজারাদার গোপাল ভাড়া ছয় পয়সা থেকে কমিয়ে চার পয়সা করে দিলে- যাতে গরিব লোকদের উপকার হয়। সে বছর দেশের অবস্থাও খুব ভাল ছিল না বলে গোপাল এই ব্যবস্থা নিলে। যাতে গরিব লোকেরা খুশি হয় পরপারে যাতে সুবিধা হয়। তখন একদল Continue Reading →

গোপাল ভাড়

রাজা কৃষ্ণচন্দ্রের দরবারে রাজবৈদ্য নিয়োগ দেওয়া হবে। দেশদেশান্তর থেকে চিকিত্সকেরা এলেন যোগ দিতে। গোপালকে রাজা দায়িত্ব দিলেন চিকিত্সক নির্বাচনের। গোপাল খুশিমনে বসলেন তাঁদের মেধা পরীক্ষায়।—আপনার চিকিত্সালয়ের আশপাশে ভূতের উপদ্রব আছে?—জি আছে। প্রচুর ভূত। ওদের অত্যাচারে ঠিকমতো চিকিত্সা পর্যন্ত করতে পারি না। দিন দিন ওদের সংখ্যা বাড়ছেই।এবার দ্বিতীয় চিকিত্সকের পালা।—আপনার চিকিত্সালয়ের Continue Reading →

রিয়েল লাইফের মেয়েরা চকচকে ঝকঝকে হয় না!

তাদের মুখে ছোট ছোট লোম থাকে। তাদের সবাই ২৪ঘন্টা পার্লারে গিয়ে ফেসিয়াল করার চিন্তা করে না। কারো পক্সের দাগ বা কাটা দাগ থাকে।তারা সারাক্ষন মেকাপ লাগিয়ে পার্ফেক্ট সেজে বসে থাকে না। নীল শান্ত চোখ দেখি যে মেয়েটা আপনার বুকের একটা হার্টবিট মিস করিয়ে দিলো, তারও দিন শেষে বাড়ি গিয়ে লেন্সটা Continue Reading →

সতর্ক মূলক পোষ্ট

১। মাগরিবের আজানের সময় পুকুরপাড়,বাঁশঝাড়, তালগাছ, সুপারীগাছ, বাসার ছাদ অথবা অন্ধকার রুমে থাকবেন না। অস্বাভাবিক কিছু.দেখে ফেলতে পারেন।২। গভীর রাতে একা রাস্তায় হাঁটার সময় যদি দেখেন কালো কুকুর বা কালো বিড়াল আপনার বামপাশ থেকে আপনাকে ক্রস করার চেষ্টা করছে, তবে এটাকে কোনভাবেই বামপাশ দিয়ে ক্রস করতে দেবেন না। আপনার ক্ষতি Continue Reading →

প্রেম পত্র

প্রিয়তমেষু পত্রের শুরুতেই জানাই শেষ বিকেলে মিষ্টি রোদের স্নিগ্ধ ভালবাসা, আশা করছি ভালই আছো। তোমার পরিবারের জন্য একবুক ভালবাসা নিও, শেষ তোমার পত্র পেয়েছিলাম মার্চে তোমার মাতৃত্বের সুসংবাদ জানিয়েছিলে। ভেবেছিলাম তুমি হয়ত আমায় দেয়া কথা ভুলেই গেছ, তোমাদের তালপুকুরে শান বাঁধানো ঘাটে তোমার কাছে এক অদ্ভুত রকমের আবদার করেছিলাম। বলেছিলাম Continue Reading →

বৌ এর অত্যাচার

স্ত্রীঃ ওই উঠো,আমার জন্য ব্রেকফাস্ট বানিয়ে আনো. স্বামীঃ উঠে হন হন করে ঘর থেকে বেড়িয়ে যাচ্ছে…. স্ত্রীঃ ষাঁড়ের মত কোথায় চললে?? স্বামীঃ উকিলের বাড়ি,আমি ডিভোর্স চাই…. ১০ মিনিট পর স্বামী ফিরে এসে চুপচাপ ব্রেকফাস্ট বানাতে বসে গেলো…. স্ত্রীঃ কি ব্যাপার?? স্বামীঃ উকিলের বাড়িতে গিয়ে দেখি উকিল থালাবাসন মাজছে………….!!!!! বিঃদঃ বর্তমানে Continue Reading →

বর্ণমালা দিয়েই যদি কথা চালিয়ে যাওয়া যায়

বর্ণমালা দিয়েই যদি কথা চালিয়ে যাওয়া যায় অহেতুক আর বাড়তি কথার কি দরকার। : ভাইয়া ভাল আছো?: হ।: দুপুরে খাইছো?: হ।: একটা কথা জিজ্ঞাস করি?: ক।: কি হইছে এইভাবে কথা কও কেন? কথা বলবা না?: ক।: বুঝছি তোমার ভাব বাড়ছে।: হ।: দেইখো আর ম্যাসেজ দিমু না তোমারে।: অ।: পিডামু কিন্তু Continue Reading →

প্রেমের কিছু চিরন্তন সত্য কথা

-কোন পানিতে কখনো শ্যাওলা জমে না?-চোখের পানি। -চিন চিন করে বুকের বাম পাশে ব্যথা করে কিন্তু এর কোনো ঔষধ তৈরী হয়নি। কোন সে ব্যথা?-ভালোবাসার ব্যথা। -সব কান্নার কারণ ব্যাখ্যা করা গেলেও কোন কান্না গোপনে কাঁদতে হয় এবং কোনো ব্যাখ্যা করা হয় না?-প্রিয় মানুষের জন্য কাঁদলে। -দেখতে অসুন্দর, তবুও দুনিয়ার সবার Continue Reading →

রাজশাহীর বিনোদন কেন্দ্র হলো পদ্মার পার

আপনি যদি রাজশাহীতে কখুন ঘুরতে আসেন তবে রাজশাহীর কিছু দর্শণীয় স্থান না দেখলে চরম মিস করবেন। কারণ রাজশাহী হলো পরিবেশ গত দিক থেকে বাংলাদেশের মধ্যে নাম্বার ওয়ান জায়গাটা দখল করে আছে। রাজশাহীর যত সব দর্শণীয় স্থান আছে তার মধ্যে সবচে সুন্দর জায়গা হলো রাজশাহী পদ্মার পার। রাজশাহীর পদ্মার পারে আপনি Continue Reading →

ভালোবাসার টুকরো টুকরো অনুভুতি

স্মৃতি তুমি বেদনার পৃতির বাধন ভূলনা ,ভূলতে চাইলে ও যায় না ভূলা ,দুঃখের সমানহয় যে খোলা, পাহার সমান দুঃখ নিয়ে বুকে সাগর সমান জল দু’ চোখে। কবি বলেছেন-ঘরের মধ্যে তুমি যত ইচ্ছা কাঁদো কিন্তু দরজা খোলার সময় হাসিমুখেই খুলবে—কারণ যদি কেউ দেখে নেয় তুমি ভেঙে পড়েছতবে সে তোমায় আরো ভেঙে Continue Reading →

আমরা সব সময় যে শব্দ টা ব্যবহার করি

আমরা সব সময় যে শব্দ টা ব্যবহার করি তার কিছু কথা বালবাল হচ্ছে ধন্যবাদের মাধূর্যতা ( বিড়ি আনসো,যাক বাল জীবনটা বাঁচাইলা)বাল শুধু একটা শব্দ নয়(বাল হচ্ছে একটা শিল্প এক আলাদা অনুভূতি)বাল হচ্ছে কোটি মানুষের হতাশার প্রতিচ্ছবি( বালের জীবন একটা পেয়েছি)বাল হচ্ছে কোটি কোটি মানুষের প্রতিবাদের অস্ত্র( তুমি আমার বাল করতে Continue Reading →

তোমার হাসি মুখ

তোমার মুখের হাসি টুকু লাগে আমার ভালোতুমি আমার ভালবাসা বেঁচে থাকার আলোরাজার যেমন রাজ্য আছে আমার আছ তুমিতুমি ছাড়া আমার জীবন শূধু মরুভুমি তোমার মুখের হাসি টুকু লাগে আমার ভালোতুমি আমার ভালবাসা বেঁচে থাকার আলোরাজার যেমন রাজ্য আছে আমার আছ তুমিতুমি ছাড়া আমার জীবন শূধু মরুভুমি তোমার মুখের হাসি টুকু লাগে আমার ভালোতুমি Continue Reading →

পিঁয়াজের মত ভালোবাসি

আমাদের ৩ বছরের সংসারে এমন খারাপ সময় কখনোই আসেনি।লামিয়া গত এক সপ্তাহ ধরে আলাদা বেডে ঘুমায়। কোন কথা বললে না শোনার ভান করে আমার চোখের আড়ালে চলে যায়। অফিস থেকে ফেরার সময় তার প্রিয় আইস্ক্রিম আনলেও সে ফিরে তাকায় না।ফুচকা খেতে নিয়ে যেতে চাইলেও সে রাজী হয়না। ছাদে বসে আমার Continue Reading →

গল্গঃ গরু চোরের শাস্তি

সারারাত ধরে দুজন গরু চোর দুটি গরু চুরি করে রাতের আঁধারে পথ হাঁটছে। একটি গাভী আর একটি ছোট বাছুর। তাদের সিদ্ধান্ত শহরের কাছাকাছি কোথাও গিয়ে গরু দুটি বিক্রি করবে। বাপ ছেলের দিকে তাকিয়ে বলছে এই তুতুই জোয়ান মানুষ এতো আস্তে হাঁটছিস কেন? পায়ে কি মেন্দি দিছস? কেন বাজান তারাতাড়িই হাটতাছি। Continue Reading →

বাস্তবতা

বাস্তবতা খুবই নির্মম যা আপনাকে সব সময় কষ্ট দিবে, আর আপনি যখুন আপনার আবেগ কে প্রশ্রয় দিবেন তখুন আপনি খনিক সময়ের জন্য প্রশান্তি পাবেন কিন্তু তার পর মুহর্তেই আপনাকে ক্ষতির সনমুখিন হতে হবে। কিছু মানুষ তোমাকে পছন্দ করে না। ব্যাপারটা এমন নয় যে তুমি তার কোনো ক্ষতি করেছ। তবু, তুমি Continue Reading →

আমার প্রশ্ন

বাবা মনে পড়ে ? সেই ভয়ানক রাত। তুমি,আমি,মা জেগে জেগে হলো প্রভাত।। কি আনন্দ ! মায়ের চেঁচানি,তোমার স্তব্দতা । আর মুষল ধারে বৃষ্টিতে টিনের চালার নীরবতা।। মনে আছে ? তোমার সঙ্গে জেগে থাকতাম। মায়ের বকুনি খেয়ে আবার ঘুমিয়ে যেতাম।। রাতেও তুমি নিতে না কোনো অবসর দিন। নিজের কাজ নিজে করে Continue Reading →

নগ্ন নগর-স্নিগ্ধ পল্লী

যন্ত্রণাময় যান্ত্রিকতা ক্লেশ বাড়ানো কৃত্তিমতা চোখ পোড়ানো উজ্জলতা নগরজুড়ে কি এক প্রকট নগ্নতা নদীর পাড়ের সকাল বেলার স্নিগ্ধতা গধুলী লগ্নে চলমান মেঘে মগ্নতা প্রকৃতির মাঝে বিরাজিত এক অসীম অপার শুভ্রতা গ্রাম জুড়িয়া ছড়ায় শুধু মুগ্ধতা আর মুগ্ধতা শহরেতে প্রান অতিষ্ঠ, মানুষে মানুষে শুধুই ছড়ায় উগ্রতা দিন জুড়িয়া দেহ মনে শুধু Continue Reading →