কবিতা একাত্তরের ডোম । আবু তা‌হের

কবিতা একাত্তুরের ডোম আবু তা‌হের প‌ঁচি‌শের কা‌লো রাত কে‌ড়ে নি‌য়ে‌ছে আমার স্বাধীনতায় পাওয়া ঘুম, ‌জে‌গে আছি আজও আমি বিভী‌ষিকা নি‌য়ে, একাত্তু‌রের প‌থে প‌থে লাশ ক‌ুড়া‌নো আমি এক ডোম। কত লাশ কে‌টে‌ছি ম‌র্গে আমি, কাঁপে‌নি হাত ‌আমার কি‌ঞ্চিত, একাত্তু‌রের প‌থে প‌থে ঝ‌রে পড়া আমের মত কু‌ড়ি‌য়ে‌ছি আমি কত দেহ, ‌দে‌খে‌ছি আমি Continue Reading →

কবিতা- চম্পা ফুল কলমে-নির্জনা বড়ুয়া

কবিতা:-চম্পা ফুল কলমে:-নির্জনা বড়ুয়া। মানবী হয়ে জম্ন নিল এক ফুল। নাম রাখলো তারা চম্পা অনেকই ভালবাসে ডাকতো চম্পা ফুল নাম ফুলের নাম হলেও, কিন্তু সেই জানতো না জম্ন নিয়ে করেছে ভুল । তার মা বাবার ছিল মতের অমিল চরমশঅশান্তি । দারিদ্রতা ছিল নিত্য সঙ্গী । এভাবে খেয়ে না খেয়ে চম্পার দিন Continue Reading →

পিতার স্বপ্ন কন্যার চোখে – তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

পিতার স্বপ্ন কন্যার চোখে – তানিয়া সুলতানা হ্যাপি মানুষের মহৎকর্ম কখনো বিফল হয় না। অবিস্মরণীয় কীর্তিই একদিন ইতিহাসে ঠাঁই পায়, দেশ, দেশের মানুষের মুক্তির সংগ্রামে তোমার আত্নত্যাগ ও বিফলে যায় নি পিতা! তোমার রক্তের সুযোগ্য উত্তরাধিকারী তোমার মতোই কাজ পাগল তোমার মেয়ে, তোমার আদর্শের দীক্ষা নিয়ে, দেশ ও জনগণের কল্যাণে Continue Reading →

কবিতা-ফেরাব তোমায়

কবিতা-ফেরাব তোমায় অবেলার রোদ্দুরে মনের রঙ্গ মেলা সাঙ্গ হলে সাঁঝ-ছায়ায় ঘরের মায়ায় ফেরানোর নেশায় আচানক হৃদয়ে জাগা অচেনা পাখির কুজন প্রণয় আবেশ ছড়িয়ে যাবে অলিন্দে নিলয়ে। উচাটন মনের উত্তাল আবেগ-প্লাবনে ভাসতে কেউ যেন ডাকবে মনের অতল গহীন থেকে; অগোচরে স্মৃতিরা তখন ঠায় দাঁড়িয়ে থেকেই পুরনো সব অবহেলার পাই পাই শোধ Continue Reading →

কবিতা-অভাগী মা

কবিতা- “অভাগী মা” “এতদিন গেছে আজও, মায়ের জন্য কাঁদি। কারণ-আমার মা যে ছিল, অনেক অভাগী। বাবা যেদিন মারা গেলেন, আমি হলাম এতিম। সেদিন থেকেই দুঃখ দিয়েছে, মায়ের কপালে লেখা। মা বলতো-বাবা নাকি, তারার ভিড়ে আছে। লেখাপড়া করি যদি, নেমে আসবে কাছে। তারায় তারায় বাবা খুঁজি, তারার ছড়াছড়ি। আমার মায়ের অভাগী Continue Reading →

সবুজ উপহার । পবিত্রজ্যোতি মণ্ডল

সবুজ উপহার   বাড়ি-ঘর নদী বাঁধ, ঝড়ে যায় গুড়িয়ে ইয়াস-ঝড়ে ভাঙ্গে গাছ, ডালপালা মুড়িয়ে। ত্রান নিয়ে দলাদলি, করে দেখো অবুজে ভাবে না তো একবার, টান পড়ে সবুজে! রাজপথে প্রতিবাদ— কেন বিদ্যুৎ আসেনি বাসা ভাঙ্গে পাখিদের, কেউ খোঁজ রাখেনি। প্রকৃতির রোষ দেখে দোষ খোঁজো প্রকৃতির ভেবে দেখো সব দোষ আমাদের স্বজাতির। Continue Reading →

কবিতা- গোলাম রাষ্ট্র

কবিতা- গোলাম রাষ্ট্র
 
আমি প্রভু তু‌মি ‌গোলাম,
উঠ‌তে বস‌তে কর‌বে সেলাম,
এই হুকুমই ‌তোমায় দিলাম।
ব‌ন্দি তু‌মি বান্দী তু‌মি,
যতই কর ফ‌ন্দি তু‌মি,
‌তোমায় শোষণ কর‌বো আমি।
আমিই রাজা মাজা সোজা,
‌তোমায় রাখ‌বো কুজা গুজা,
চক্ষু তোমার রাখ‌বে বুজা,
আমার ভোজন তোমার রোজা।
‌তোমার ফসল আমি নিব,
‌তোমায় আমি ভূ‌ষি দিব,
ঘাড় বাঁকালে ঘু‌ষি দিব,
‌‌তোমার খু‌শি কে‌ড়ে নিব।
‌দেখ‌বো আমি স্বার্থ আমার,
কে‌ড়ে নি‌য়ে অর্থ তোমার,
কর‌বো ব্যর্থ রাষ্ট্র তোমার।
আমার হ‌বে সকল শিক্ষা,
‌তোমার ত‌রে অ-শিক্ষা,
হাতটা পে‌তে নি‌বে ভিক্ষা,
এটাই তোমায় আমার দীক্ষা।
কলগু‌লো সব আমার হ‌বে,
মলগু‌লো সব তু‌মি পা‌বে,
পাহাড় কে‌টে ঘর বানা‌বো,
তোমর ভূ‌মে জল গড়া‌বো।
‌‌তোমায় আমি বচন দিলাম,
তোমার সকল আব্রু ‌নি‌য়ে,
‌তোমার সকল নিলাম দি‌য়ে,
‌তোমায় আমি কর‌বো গোলাম,
তু‌মি গোলাম রাষ্ট্র‌ গোলাম।

বাবুমশাইয়ের নৌকা ভ্রমণ

বিদ্যেবোঝাই বাবুমশাই চড়ি সখের বোটেমাঝিরে কন, “বলতে পারিস সূর্যি কেন ওঠে ?চাঁদটা কেন বাড়ে কমে ? জোয়ার কেন আসে ?”বৃদ্ধ মাঝি অবাক হয়ে ফ্যাল্‌ফেলিয়ে হাসে । বাবু বলেন, “সারা জনম মরলিরে তুই খাটি,জ্ঞান বিনা তোর জীবনটা যে চারি আনাই মাটি । খানিক বাদে কহেন বাবু, “বলত দেখি ভেবেনদীর ধারা কেম্‌‌নে Continue Reading →

সুন্দর কিছু কবিতা

আমাকে ভালোবাসতে হবে না, ভালোবাসি বলতে হবে না মাঝে মাঝে গভীর আবেগ নিয়ে আমার ঠোঁট দুটো ছুঁয়ে দিতে হবে না, কিংবা আমার জন্য রাত জাগাপাখিও হতে হবে না। অন্য সবার মত আমার সাথে রুটিন মেনে দেখা করতে হবে না কিংবা বিকেল বেলায় ফুচকাও খেতে হবে না। এত অসীম অসংখ্য “না”-এর Continue Reading →

শূন্য অনুভূতি

এখন আর কবিতা লেখার অনুভূতি আসেনা । মনের মাধুর্যতা নিয়ে লিখব, সেই অনুভূতি এখন মনের অতল গহব্বরে খুঁজে পাইনা। প্রকৃতির ডানা কাটা পরী এখন আর বলে না, তুমি সব ছেড়েছুড়ে চলে আসো আমার সন্নিকটে। আমি তোমার মনকে রাঙ্গিয়ে দিবো আমার সকল মায়ায়। বাতাস কানে কানে এসে বলেনা তোমার জন্য উড়ো Continue Reading →

মালতির গাছ/ তোরি জন্য কাব্য

মালতির গাছ মালতি নাকি আমার বাড়ির সম্মুখে আসিয়া বাগান থেকে গোলাপ সহ গাছ তুলিয়া নিয়া গেছে । পাড়ার সকলে আমার শরীরে কোন রাগ দেখিতে না পাইয়া বলা বলি করিছিল মালতির সাথে মোর ভাব চলিতেছে । ঐদিকে পরিচর্যা বিহীন আমার গাদা ফুল গাছ মারা যাইতেছে সেই দিকে কারো দৃষ্টি পরিছে না Continue Reading →

কবিতা : প্রেমিক না বন্ধু চাই

কবিতা : প্রেমিক না বন্ধু চাই আমার প্রেমিক চাই নাএকটা বন্ধু চাই আমার জন্য তোমাকে প্রেমিক হতে হবে না শুধুমাত্র বন্ধু হলেই হবে। আমার জন্য তোমার অভ্যাস গুলো বদলাতে হবে নাশুধু সেই অভ্যাসেই আমাকে রাখবে । নতুন করে আমার জন্য নিজেকে সাজিয়ে নিতে হবে না তুমি যেমন আছো তেমন হলেই Continue Reading →

কেউ একজন

কেউ একজন আসুকসকাল বিকাল সন্ধ্যা রাতে আমার কথাই ভাবুক কেউ একজন আসুকএলোমেলোভাবেই চুলগুলো খোলা রাখতে বলুক কেউ একজন আসুকযার তার সাথে কথা বলতে নিষেধ করুক কেউ একজন আসুককথায় কথায় ‘ পাগলী’ বলে মুচকি হাসুক কেউ একজন আসুকযানজটের অজুহাতে আমায় অপেক্ষায় রাখুক কেউ একজন আসুকলুকিয়ে সিগারেট খেয়ে ধরা পড়ার ভয়ে মিথ্যে Continue Reading →

কবিতা : আমার রাতের প্রেমিক

কবিতা : আমার রাতের প্রেমিক তুমি যে আমার রাতের প্রেমিকআমার একাকীত্বের প্রেমরাতের নিস্তব্ধ শহরে, আমার খুঁজে পাওয়া ঠিকানা। সন্ধ্যা আকাশের প্রেমিক হয় রাতের তারা জোছনা রাতের প্রেমিক হয় চন্দ্রিমা অমাবস্যার প্রেমিক হয় জোনাকি, তবে তুমি যে আমার প্রতিটা রাতের প্রেমিক হও। তোমার শত ব্যস্ততা আমার অপেক্ষার প্রহর , আমার আনমনা Continue Reading →

তোমাকে ভালবাসি কেন জানো

এই শুন, তোমাকে ভালবাসি কেন জান? তোমার চোখে যাদু আছে বলে, তোমার অধরে গোলাপের ছুঁয়া আছে বলে। তোমাকে ভালবাসি কেন জান? তোমাকে না দেখে একটা মূহূর্ত কাটেনা বলে, তোমার কোকিল কন্ঠী সূর অমৃত সূধার মত কানে বাজে বলে, তোমার কৃষ্ণ কেশের নদীময় স্রোতে দোলায়িত হই বলে। তোমাকে ভালবাসি কেন জান?তোমার Continue Reading →

ইট পাথরের শহরে সবাই স্বার্থপর

ব্যস্ত এই শহরে হাজার মানুষের ভিড়েআমি একা বডড একা বলার জন্য সবাই বলে আছি পাশে সত্যি হলো খারাপ সময়ে কেউ থাকেনা আশে পাশেআজ জানতে বর ইচ্ছে হয় কতটা কষ্ট পেলে কষ্টের অবসান হয়!? একে একে সবাই গেল চলেআমায় একলা ফেলে আজো প্রতি মুহূর্ত কাটে আমার পুরনো স্বৃতির মেলায় যদিও কারো Continue Reading →

কবিতার নামঃ ধরো যদি

আমি বৃষ্টি হয়ে গেলে তোমার শহরে, তুমি ভিজবে কি ভালোবাসার অনুভবে? ছুঁয়ে যাবে কি একটিবারও আমায়, কিছুটা না ছুঁতে চাওয়ার বাহানায়? মেঘলা আকাশ হই যদি তোমার জানালায়, তুমি আনমনে ভাববে কি শুধুই আমায়? তোমার স্মৃতির হাজার পাতার আঙ্গিনায়, হবে কি আমার কল্পতরুর বাস? দক্ষিণা বাতাস হই যদি ক্লান্ত দুপুরে,ছুঁয়ে যাই Continue Reading →

প্রেমে পড়ি

আমি প্রেমে পড়ি বার বার তোমার! নিজের ইচ্ছের বিরুদ্ধে ও প্রেমে পড়ে যাই বার বারকখনো তোমার হাসির প্রেমে পড়ি কখনো তোমার চোখের চাহনির প্রেমে পড়ি কখনো তোমার ঐ বুক খোলা শার্টের লোমশ বুকের প্রেমে পড়ি!! আমি না চাইলে ও তোমার প্রেমে পড়ি বার বার!কখনো প্রেমে পড়ি তোমার ব্যক্তিত্বে কখনো তোমার Continue Reading →

বঙ্গবন্ধু মুক্তিকামী চেতনার

কবিঃমাহাবুব উদ্দিন ফারুক তুমি জন্মেছিলে বলেই,জন্মেছে এই দেশ। তুমি জন্মেছিলে বলেই,পাক-হানাদার হয়েছিলো নিঃশেষ। তুমি জন্মেছিলে বলেই।পরাধীনতার শৃঙ্খল হতে,পেয়েছি স্বাধীনতা। তুমি জন্মেছিলে বলেই, আপামরজনসাধারণ পেয়েছে দেশরত্ন”শেখ হাসিনা” নামক জাতির শ্রেষ্ঠতর মানবতা।। তোমার প্রেরণায় বাঙ্গালি জাতি পেয়েছে বাঁচারসজিবতা। তোমায় হারিয়ে সেই জাতি পেয়েছে বিষাদময় নিরবতা। চিরস্মরণীয় হয়ে রবে,জাতির কাছে। জাতির প্রতি তোমার Continue Reading →

কবিতা -আক্রোশ

হিংসা, বিদ্বেষ, লোভ-লালসা এ হেতু চরম বিনাশয়। ভালো তো থাকিতে চায় আমি আপনে!পরম শান্তি কাড়িয়া নিয়াছে অযথা অকারণে। হে বৎস এ হেতু পড়িয়াছো অনাকাঙ্ক্ষিত ভেজালে। সর্বদা কুৎসা রটাইলে মিথ্যার নির্ভেজালে। জগতের মানুষ নামক কীটপতঙ্গদ্বয় ছড়াইয়া অপবাদ। মানুষের সাথে অমানুষের বাধাইয়াছে সংঘাত! ষড়রিপুর মায়াজালে জড়াইয়া মানব;ধরণীমাঝে ছড়াইয়া আছে হইয়া দানব।। ক্ষমতার Continue Reading →