বাঁচার মতো বাঁচতে চাই

সুখের তেষ্টায় দুঃখ পান করে,
আমার অসুখ হয়েছে
আমি সে অসুখ হতে মুক্তি চাই।

আমি একটু চিৎকার করে কাঁদতে চাই,
চাপা কান্নায় দম বন্ধ হয়ে আসে
আমি এ চাপা কান্না হতে রেহাই চাই ।

বহুদিন আয়নায় আমি আমার হাসি মুখ দেখি না
এই বিষন্নতা আর ভালো লাগে না,
আমি মন থেকে একটু হাসতে চাই
আমি আমার আগের আমিটাকে ফিরে পেতে চাই।

মুখোশের আড়ালে মুখ দেখতে দেখতে,
হতাশ হয়ে গেছি।
আমি মুখ ও মুখোশ চেনার মতো একটা চোখ চাই।

আমাবস্যার রাত ভালোবাসতে বাসতে,
পূর্নিমার চাঁদ কেমন ভুলে গেছি
আমি একটা পূর্নিমার রাত চাই।

গোধূলির অপেক্ষায় থাকতে থাকতে
সকালের সিগ্ধতা ভুলে গেছি,
আমি এখন একটি সুন্দর সকাল চাই ।

বেঁচে থাকার লড়াই করে,
ভালো থাকা ভুলে গেছি।
আমি এবার একটু ভালো থাকতে চাই।
বিষন্নতা কে দূরে ঠেলে ,
আমি এবার বাঁচার মতো বাঁচতে চাই ।