কবিতা: রঙিন শহর

এই শহরের মানুষগুলো ভীষণ রকম ব্যস্ত।সকাল থেকে মাঝরাত অব্ধি ছুটতে অভ্যস্ত।কারো দিকে কেউ ফিরেও চায়না।চেনা মানুষও যেন অচেনা। পাশাপাশি থেকেও তারা হয়না প্রতিবেশী।দেখাদেখি হলেও কথা হয়না বেশী।অতিথি দেখলে মুখে ভদ্রতার হাসি।খেয়েদেয়ে চলে গেলে হাঁফছেড়ে বাঁচি। বিষাক্ত কালো ধোঁয়া ভেসে বেড়ায় বাতাসে।রোগজীবাণু বাসা বাঁধে প্রতিটি নিশ্বাসে।মশা, মাছি, ছারপোকার অবাধ বসবাস।ডেঙ্গু আর Continue Reading →

আমার বাবা

আমার বাবার কখনো ক্লান্ত লাগে নানিরলস পরিশ্রম সারাদিন করতে থাকেন তার সন্তানদের ভালো রাখবে বলে ।আমার বাবার কখনো তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটা পুরোনো হয় না! মাত্র ১৫০০ টাকায় কেনা মোবাইল ফোনটা গত পাঁচ বছর যাবৎ দেখছি,মোবাইল ফোন কেনার কথা বললেই আমার বাবা বলে এটাই তো চলেছে নতুন করে দরকার নেই Continue Reading →

ব্যার্থ জীবন

নির্মমভাবে ঠকে যাওয়ার পর কিছু মানুষ প্রতিনিয়ত নিজেকে শেষ করে দেবার নেশায় মত্ত থাকে । কখনো স্লিপিং পিল,কখনো সিলিং ফ্যানে রশি টাঙানো,কখনো আবার ব্লেড দিয়ে হাত কেটে রক্তাক্ত করে প্রতিবারই নিজেকে মৃত্যুযন্ত্রণা দেয়। এতে কিছু মানুষ চিরতরে ঘুমিয়ে গেলেও বেশিরভাগ মানুষ প্রতিনিয়ত মৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করতে করতে টিকে থাকে! দিন Continue Reading →

টুকরো চুকরো গল্প

টুকরো নং -০১ কাউকে মুগ্ধ করবার মতোআমার কোন রুপ বা গুন নেই,আমি অসম্ভব সুন্দরী নই! আমার গায়ের রং ততটা উজ্জ্বল নয়,আমার লম্বা চুল বা ড্যাব ড্যাবে চোখ নেই।আমার জোড়া ভ্রু,ঠোঁটে তিল বা গালে টোল নেই,আমার গানের সুরেলা কন্ঠ নেই।আমি তেমন সুন্দরি নই! আমার গায়ের রং চাপা, সুরু নাক,ছোট চুলচোখের নিচে Continue Reading →

সাদাসিধে মেয়ে

কাউকে মুগ্ধ করবার মতোআমার কোন রুপ বা গুন নেই,আমি অসম্ভব সুন্দরী নই! আমার গায়ের রং ততটা উজ্জ্বল নয়,আমার লম্বা চুল বা ড্যাব ড্যাবে চোখ নেই।আমার জোড়া ভ্রু,ঠোঁটে তিল বা গালে টোল নেই,আমার গানের সুরেলা কন্ঠ নেই।আমি তেমন সুন্দরি নই! আমার গায়ের রং চাপা, সুরু নাক,ছোট চুলচোখের নিচে কালো দাগ,মুখে চিন্তার Continue Reading →

একটি বিবাহীত মেয়ের চাপা কষ্ট

আমি দারুন অভিনয় করতে পারি!আমি দুঃখ লুকাতে পারি,আমি শত ব্যথা নিয়ে হাসতে পারি ,হাসাতে পারিসারাদিন হাসি মুখ নিয়ে থাকতে পারি! আমি বলার থেকে,শতগুন লুকিয়ে রাখতে পারি।আমি ব্যস্ততায় ডুবে থেকে অতীত ভোলার নাটক করতে পারি,আমি নির্বাক স্রোতার মতো সকলের অভিযোগ শুনতে পারি।তবু তাদের কাছে দোষী হয়ে যাই,সবটা মেনে নিয়ে মুখে হাসি Continue Reading →

ঠুনকো সম্পর্ক না থাকাই ভালো

যে সম্পর্কে মন বোঝে না,মনের গভীরতা খোঁজে নাআমি মনে করি সে সম্পর্ক থাকার চেয়ে না থাকাই ভালো। যে সম্পর্কে ব্যস্ততার অজুহাত শুনে,অপরজনকে অবহেলিত হয়ে কষ্ট পেতে হয়আমি মনে করি সে সম্পর্ক থাকার চেয়ে না থাকাই ভালো। যে সম্পর্ক বারবার বিশ্বাস ভেঙে দেওয়া হয়,আমি মনে করি সে সম্পর্ক থাকার চেয়ে না Continue Reading →

ভালো থাকো প্রিয় বাবা

জানো বাবা আজ ” বাবা দিবস”অথচ তুমি নেই পাশে,পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে গেছো না ফেরার দেশে। কাকে জানাই শুভেচ্ছা? জিড়িয়ে ধরি কাকে?কে এখন আমায় মা বলে জড়িয়ে নিবে বুকে?হারিয়ে গেছে সকল আহ্লাদ,বাবা তোমারি সাথে!জানো বাবা আজ ” বাবা দিবস”অথচ তুমি নেই পাশে,পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে গেছো না ফেরার দেশে। তোমাকে Continue Reading →

বাঁচার মতো বাঁচতে চাই

সুখের তেষ্টায় দুঃখ পান করে,আমার অসুখ হয়েছেআমি সে অসুখ হতে মুক্তি চাই। আমি একটু চিৎকার করে কাঁদতে চাই,চাপা কান্নায় দম বন্ধ হয়ে আসেআমি এ চাপা কান্না হতে রেহাই চাই । বহুদিন আয়নায় আমি আমার হাসি মুখ দেখি নাএই বিষন্নতা আর ভালো লাগে না,আমি মন থেকে একটু হাসতে চাইআমি আমার আগের Continue Reading →

একজন-অপরজন

একজন সবটা উজার করে ভালোবেসে যায়,অপরজন তা অবহেলা করে বেড়ায় । একজন প্রতি রাতে কেঁদে বালিশ ভেজায়,অপরজন নতুন কাউকে রাত জাগা শেখায়। একজন একের পর এক বিশ্বাস ভাঙে,অপরজন তা জোড়া লাগায়। একজন ঠুনকো অাঘাতে ভেঙে যায়,অপরজন শত আঘাতের পরেও দেওয়ালের মতো অটল থাকে। একজন ভালোবেসে মনের গভীরতা খোঁজে ,অপরজন ভালোবাসা Continue Reading →

আমি তেমন নই

ভালোবাসার বিনিময়ে ভালোবাসা পাবো না বলে ছেড়ে দিবো,আমি এমন ভালোবাসিনি প্রিয়। কষ্টের বিনিময়ে আঘাত দিবো,আমি এমন ভালোবাসিনি প্রিয়। তুমি ভুলে গেলে,আমিও ভুলে যাবো,আমি এমন ভালোবাসিনি প্রিয়। অপেক্ষা না করে উপেক্ষা করবো,আমি এমন ভালোবাসিনি প্রিয়। যেতে চাইলে ছেড়ে দিবো,আমি এমন ভালোবাসিনি প্রিয়। আমি ভালোবাসা দিয়ে জড়িয়ে নিবো,নিজের রাগ- অভিমান কমিয়ে দিবো।বুঝিয়ে Continue Reading →

ভুলে গিয়ে ভালো থাকা যায় না

ভুলে যেতে চাইলেই কি আদৌ ভোলা যায়,তুমিই বলো-ভালো আছি বলেই কি আদৌ ভালো থাকা যায়,তুমিই বলো। যেখানে একসাথে বসে প্রতিটা সুন্দর সকাল দেখবো বলে কথা ছিল,সেখানে আমাদের কেন বিচ্ছেদ হলো! ভুলে যেতে চাইলেই কি আদৌ ভোলা যায় বলো!“প্রিয়” নামে ফোনে যে নাম্বারটা সেভ ছিল,তা ডিলিট করলেই কি,মন থেকে মুছে যায় Continue Reading →

আত্মকথা

কাকে বলে বোঝাবো নিজের কথা গুলো,কেই বা তা বুঝবে? এসব ভেবে সকাল হুলিয়া দুপুর গড়ায়,বিকেল গড়িয়ে রাতঅথচ খুঁজে পাইনা ভরসা দেওয়ার মতো দুটো হাত। দিনশেষে নিজেই নিজেকে দেই সান্ত্বনা,স্বার্থপর দুনিয়ায় কেউ কারো না। প্রিয় আমি,নিজেকে শক্ত করো-স্বার্থপর দুনিয়ায় আপন মানুষ খুঁজো নাঅযথা দুঃখ ছাড়া কিছুই পাবে না। নিজেই নিজের বন্ধু Continue Reading →

অবলা নারী

নারীরা সামান্যতেই কাঁদে,হ্যাঁ নারীরা কাঁদে,তবে অকারনে কাঁদে না।প্রতেকটা নারীর চাপা কান্নার পেছনে কিছু না কিছু লুকায়িত কারন থাকে,যে কারনগুলো নারী কখনো কাউকে বলতে পারে না। নারী কি কেবল নিজের জন্য কাঁদে?নারীকে কাঁদতে হয়,কাঁদতে বাধ্য হতে হয়নারীকে পরিবারের ব্যাথায় বিচলিত হতে হয়। নারী সামান্যতেই কাঁদে,তাই বলে কি নারীর ধৈর্য নেই?নারীকে দান Continue Reading →

বেঁচে থাকার দায়ে বেঁচে আছি

তোমাকে ছাড়া বাঁচবো না,বহু বছর আগে খুব বড় মিথ্যা বলেছিলাম প্রিয়।আমাকে ক্ষমা করে দিও। এ শহরে রোজ রোজ বহু সম্পর্কের বিচ্ছেদ হয়বহু স্বপ্নকে গলা টিপে হত্যা করা হয়,বহু মন ভেঙে দেওয়া হয় কাঁচের ন্যায়।তবু তারা বেঁচে থাকে-অনুভূতি ছাড়া মন নিয়ে,দীর্ঘশ্বাস ভরা বুক নিয়ে,অভিশপ্ত এক জীবন নিয়েআমিও বেঁচে আছি তাদের ন্যায়। Continue Reading →

ভালোবাসার কাছে প্রশ্ন

“ভালোবাসা ” তুমি কি কেবলইমেয়েটির ভেজা বালিশ,চোখের নিচের কাল শিটে দাগ।ছেলেটির বুকের ভেতর বন্ধ হওয়া হার্ট?অথবা পুরে যাওয়া নিকোটিন। “ভালোবাসা” তুমি এত নির্মম কেন?রোজ রোজ কত শত মন ভেঙে দাও কেন?সাজানো স্বপ্ন গলা টিপে হত্যা করো কেন? “ভালোবাসা” তুমি যদি স্বর্গ থেকে আসো-তবে শেষমেশ জীবনটাকে নরক করে দিয়ে চলে যাও Continue Reading →

আমি পুরুষ আমাকে পারতেই হয়

আমি পুরুষ,আমার শত কষ্ট হলেও আমি কাঁদতে পারি নাআমি পুরুষ এই একটি মাএ শব্দের দায়ে,আমার পাহাড় সমান কষ্ট হলেও আমাকে তা প্রকাশ করতে নেই। আমি পুরুষ,আমাকে সামান্য আঘাতে ভেঙে পড়লে চলে না,আমাকে শত আঘাতের পড়েও দেয়ালের মতো অভেদ্য অটল থাকতে হয়। আমি পুরুষ,যেদিন আমি বাজারের ব্যাগটা প্রথম হাতে নেইসেদিন থেকে Continue Reading →

প্রাক্তনের কাছে চিঠি

প্রিয়তম,আপনাকে নিয়ে আমার কাল্পনাতে বরাবরই ব্যক্তিগত কিছু ইচ্ছে ছিল। ইচ্ছে ছিল পিচ্ ঢালা রাস্তায় আঙ্গুলে আঙ্গুল ছুঁয়ে হেঁটে দুজনে কোন এক বসন্তের বিকেল পাড় করো দিবো। ইচ্ছে ছিল কোন এক শীতের সকালে,শিশির ভেজা ঘাসের উপর খালি পায়ে আপনার সাথে হেঁটে বেড়াবো। রাগে -অভিমানে অথবা ভালোবাসা প্রকাশে রোজ রোজ আপনি করে Continue Reading →

কল্পনায় ভালোবাসা

আপনি আবার ফিরে আসবেন কিনা জানি না,অথচ রোজ রোজ আমি আপনার ফিরে আসার জন্য অপেক্ষার প্রহর গুনি।দিন শেষে পাখিরাও নীড়ে ফিরেএই আশাতে বুক বাঁধি। আপনার আমার আবার টেলিপ্যাথি হবে কিনা জানি না,তবে রোজ রোজ ফোন হাতে নিয়েআমি আপনার একটি ক্ষুদে বার্তা পাওয়ার জন্য অাশা রাখি।একটি মূমুর্ষ রোগীর পাশে শেষ নিশ্বাস Continue Reading →

অর্ধাঙ্গীনি হতে চেয়েছি

তুমি কখনোই আমাকে ঠিকঠাক ভাবে বুঝে ওঠো নি,আমি তোমার অর্ধাঙ্গীনি হতে চেয়েছিলামপ্রেমিকা হতে চাই নি।কিন্তুু তুমি তা কখনোই বুঝো নি। শুধুমাএ বৃষ্টিতে ভেজার আনন্দ উপভোগ করবার জন্য আমি তোমাকে পাশে চাইনি,বরং প্রচন্ড ঝড়ের মধ্যে বজ্রপাতের শব্দ শুনে-তোমার বুকে মাথা গুঁজে রাখতে চেয়েছিলাম।আমি তোমাকে প্রেমিক হিসেবে চাইনি,সারাজীবনের সঙ্গী হিসেবে চেয়েছিলাম ।কিন্তুু Continue Reading →