Breaking News

অবহেলা অতঃপর ভালবাসা

মাথায় চুকচুকে তেল,ছোখে মোটা ফ্রেমের চশমা,আর কমদামি সেন্ডেল পরা ছেলেটা ধ্রুব,,
আজ তার কলজের প্রথম দিন,তার পরিবার সম্পর্কে না বলি,
black BMW দিয়ে,সারা গায়ে বড়লোকের স্টিকার মারা মেয়েটির নামে আনহা,তারও আজ কলেজের প্রথম দিন,
দুইজন মানুষ দুই মেরুর,কারণ আনহার বন্ধুবান্ধবের অভাব নেই,আর ধ্রুব এর হাতে গোনা কয়েকজন বন্ধু,
ধ্রুব আর তার বন্ধু রিয়াদ কলেজে ডুকতেছে,,রিয়াহ অনেক স্মার্ট হলেও ধ্রুব অনেক শান্ত আর ভদ্র,যাকে আপনারা শহরের ভাষায় গাইয়া বলেন,
যেখানে পুরো ক্লাস জুড়ে আনহার রুপের কথোপকথন সেখানেই ধ্রুব নামক ছেলেটি নিশ্চচুপে বইয়ের পাতা উল্টে যায়,
কিছুক্ষণ পর ক্লাসে স্যার এলো
=> hello everybody,how are you?(sir)
=>We are fine sir( আমরা সবাই মিলে একসাথে উত্তর দিলাম)
=>আমি তোমাদের ফিজিক্সের টিচার আর তোমাদের ক্লাস টিচার ও,আজ আমরা কোন ক্লাস করবো না,আজ আমরা একে অপরের সাথে পরিচিত হব,
=>জী স্যার(সবাই একসাথে)
=> তাহলে পরিচয় শুরু হোক,
=> জী স্যার( সবাই একসাথে)
স্যার একে একে সবার পরিচয় নিয়ে এবার আসলেন ধ্রুব এর কাছে,
একি তোমার এই অবস্থা কেন?তুমি কি করে এই কলেজে ছান্স পেলে??
একথা শুনে সবাই হাসতে লাগল,এটা দেখে ধ্রুবর মন খারাপ হয়ে গেল,
=>তোমরা কে কে এস এস সি তে A+ পেয়েছ হাত উঠাও দেখি(স্যার)
স্যার দেখল অনেকেই হাত তুলেছে,সবার মাঝে ধ্রুব ও আছে,স্যার ওকে হাত তুলতে দেখে জিজ্ঞেস করল
=>তুমি   A+ পাইছো?(স্যার)
=>হে স্যার আমিও পাইছি,(ধ্রুব)
স্যার তারপর বলল H.S.C তে কে গোল্ডেন A+ পাইছ??? তখন স্যার দেখল শুধু মাত্র দুইজন পাইছে,একজন আনহা আর একজন ধ্রুব,,
স্যার ওকে আবার দেখে অবাক হয়ে গেল,বাকি ছাত্রছাত্রীরা ও তাকিয়ে রইল ধ্রুবর দিকে,,স্যার তখন বলল
=>সাবাস বেটা,,তুমি একদিন অনেক বড়ো হবে,
স্যারের এমন খুশি হওয়া দেখে ধ্রুবর উপর আনহার রাগ বাড়তে লাগল,
আজকের মতো ক্লাস সেষ,তাই ধ্রুব মাঠে বসে বই নিয়ে পরতেছে,তখন আনহা ওর সামনে এল,
=>ওই তোর মতো গাইয়া এ কলেজে কি করে চান্স পেল আমি কিছুই বুঝতেছিনা,যাই হোক খবরদার কখন আমার সাথে টক্কর দিবিনা(আনহা)
.
ধ্রুব কিছুই বুঝতে পারল না যে মেয়েটা তাকে কেন এতো কথা বলে চলে গেল,
.
.
পরের দিন কলেজে যাওয়ার পর..
ধ্রুব  ক্লাস থেকে বের হচ্ছে আর আনহা ডুকতেছে এমন সময় কে যেন ধ্রুব কে ধাক্কা দেয়,আর তখনি সে গিয়ে আনহার গায়ের উপর পরে,আর তখনি আনহা..
ঠাসসসস…ঠাসসসস..করে দুটো থাপ্পর বসিয়ে দেয় আর বলে,
=>ওই ছোট লোকের বাচ্ছা তোর এতো সাহস আমাকে টাচ করিস,(আনহা)
ধ্রুব গালে হাত দিয়ে মাথা নিচু করে দাড়িয়ে আছে আর তার ছোখ দিয়ে পানি ঝরছে,কিন্তু তখন ও আনহার রাগ কমেনি,
ধ্রুব আস্তে আস্তে স্যারের প্রিয় হয়ে উঠে আর আনহার ছোখে
 বিশ হয়ে উঠে,
ধ্রুব খুব ভাল গিটার বাজাতে জানে যা কেও জানতো না,আর সে একটা রেডিও স্টেশনের আর জে ছিল সেটাও কেও জানে না,তার প্রোগ্রামের নামে ছিল’শুন্যতায় ভালবাসা’ আর সেই শোই নিয়মিত শুনত আনহা,,,
কলেজে পরিক্ষা শুরু হইছে আর সকলে ভালভাবে পরিক্ষা ও দিল,
আজ পরিক্ষার রেজাল্ট  দিবে,সবাই রেজাল্ট আনতে গেল,
 সবাই অবাক কারণ ধ্রুব প্রথম আর আনহা ২য় তম হয়েছে
এটা দেখে আনহার রাগ আরো বেশি হয়ে গেল ধ্রুবর উপর,
কিছুদিন পর…
=> ওই তুমি আমাকে মাপ করে দাও।(আনহা)
=> কেন? কি জন্য?(ধ্রুব)
=> আমি না জেনে না বুঝে তোমাকে অপমান করেছি,আমাকে ক্ষমা করে দাও(আনহা)
=>আমিতো কখন ভুলে গেছি ওসব(ধ্রুব)
=>তারপর বল ক্ষমা করছো(আনহা)
=>ঠিক আছে করলাম(ধ্রুব)
=> তাহলে আমরা এখন ফ্রেন্ড।(আনহা)
=> কেন?(ধ্রুব)
=> না হলে বুঝবো তুমি আমাকে ক্ষমা করোনি, (আনহা)
=> ঠিক আছে আমরা ফ্রেন্ড।(ধ্রুব)
এরপর তারা সবসময় একসাথে ঘুরাফেরা করে,একসাথে আড্ডা দেয়,ধ্রুব আনহা কে ছাড়া কিছুই বুঝে না,আনহা ও ধ্রুব কে ছাড়া কিছুই বুঝেনা,
একদিন ধ্রুব…………চলবে…..

No comments