Breaking News

কবিতাঃ- "অঙ্কুরী বৃদ্ধার সমীকরণ"

অপুর্ণতার চাদরে লুকিয়ে থাকা বিষুবরেখা;
উদীয়মান তরুণীর কলমের মৃত্যু;
আমি আজও পারি নি মানতে;
মৃত্যুর রহস্য টা, কেউ পারে নি জানতে;
উইপোকার দখলে থাকা ডায়েরি টা;
পড়েছিলাম আমি খানিনটা।
চার দেয়ালের মাঝে বন্ধী লাশটা;
হাসপাতালের ত্রিশ নাম্বার বেডে পড়ে আছে।
পায়ে ষোল নাম্বার ট্যাগ লাগানো।

অঙ্কুরী বৃদ্ধার অসমাপ্ত আত্মজীবনী;
লিখেছে অনেক গল্প;
সবকিছু ছিলো অল্প;
পুর্ণতা পায় নি কিছুই।
মৃত্যু এসেছিলো তার আগেই।

কত ছিলো স্বপ্ন.!
কতো ছিলো প্রশ্ন..!
সবই ভাসে ধুসর শুন্য
কিছুই হয় নি পুরণ;
আপন তো অনেক ছিলো;
কেউ তো করেনি স্মরণ।
জগৎ ভরে একটাই সত্য;
চিরন্তন সত্য ছিলো মরণ।
আমি যা বলেছি, উদীয়মান তরুণীর কথা;
এখন সবটাই ধুসরে ঢাকা;

ডায়েরির শেষ পাতায় লিখেছিলো কিছু লাইন ;
তুমি পড়েছো, কিনা জানি না;
তোমার চোখে পড়েছিলো..?
হয়তো পড়ে নি;
বলেছিলো সে, অশ্রুশিক্ত অক্ষরবৃত্তে;
“অঙ্কুরী হয়ে দেখেছি আয়না;
দর্শনের পশ্চাতে অনুপস্থিত মুখখানা;
এই দেহে প্রাণ আসুক, আমি আর চাই না;
ব্যস্ত নগরীতে মানুষ অনেক কিছু চাই;
যেমন আমি চেয়েছিলাম, স্বপ্ন হয়নি পুরণ”
মরণ এসে গ্রাস করেছে আমায়;
কাব্যর নাম, “অঙ্কুরী বৃদ্ধার সমীকরণ”

সমাপ্ত।

No comments